চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ৫ ডিসেম্বর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

‘অসম্ভব’ সিনেমায় তারা

বিনোদন প্রতিবেদন:
ডিসেম্বর ৫, ২০২১ ৯:৩১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

প্রথমবারের মতো সিনেমা নির্মাণ করছেন নন্দিত অভিনেত্রী, নির্দেশক অরুনা বিশ্বাস। সিনেমার নাম ‘অসম্ভব’। সরকারি অনুদানের এই সিনেমার ৬০ ভাগ অংশের কাজ শেষ এরমধ্যে। সিনেমার মূল গল্প অরুনা বিশ্বাসের ভাই প্রসূন বিশ্বাস মিঠুর এবং সংলাপ রচনা করেছেন প্রসূন বিশ্বাস মিঠু ও মুজতবা সউদ। সিনেমাটিতে আফজাল চৌধুরী চরিত্রে অভিনয় করছেন আবুল হায়াত, কাজল চরিত্রে অরুনা বিশ্বাস, তার বিপরীতে সুমন চরিত্রে শতাব্দী ওয়াদুদ, রেখা চরিত্রে সোহানা সাবা, তার বিপরীতে সাগর চরিত্রে ‘গাজী আব্দুন নূর, শান্ত চরিত্রে শাহেদ, তার বিপরীতে পুষ্পিতা চরিত্রে স্বাগতা এবং যাত্রা সম্রাজ্ঞী জ্যোৎস্না বিশ্বাস চরিত্রে জ্যোৎস্না বিশ্বাস নিজেই অভিনয় করছেন। সিনেমাটির প্রযোজনা উপদেষ্টা প্রসূন বিশ্বাস মিঠু। সিনেমাটি নির্মাণ প্রসঙ্গে অরুনা বিশ্বাস বলেন, ‘যেহেতু আমি দীর্ঘদিন ধরেই চলচ্চিত্রে এবং নাটকে অভিনয় করছি, তাই সবাই ‘অসম্ভব’ সিনেমাটিকে নিজেদের সিনেমা হিসেবে মনে করেই শতভাগ মনোযোগ দিয়ে কাজ করছেন। আমরা সবাই একটি পরিবারের মতো হয়েই কাজ করছি। শ্রদ্ধেয় আবুল হায়াত আঙ্কেল তো বললেনই যে তিনি দীর্ঘদিন পর মনের মতো একটি সিনেমায় কাজ করছেন। আজ বাবা বেঁচে থাকলে হয়তো সবচেয়ে বেশি খুশি হতেন। বাবাকে খুব অনুভব করছি। মা সার্বক্ষণিক আছেন আমার পাশে আমাকে শক্তি আর সাহস যোগাতে। আমি প্রত্যেক শিল্পীর কাছে, পুরো ইউনিটের কাছে আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ।’ আবুল হায়াত বলেন, ‘অরুনা সিনেমাটি খুব যত্ন নিয়ে কাজটি করছে। সবাই একটি পরিবারের মতো হয়েও কাজ করছে, যে কারণে আমি ভীষণ আনন্দ পাচ্ছি।’ শাহেদ বলেন, ‘অরুনা দিদি এই দেশের এতিহ্যবাহী একটি পরিবারের সন্তান। তার নির্মাণে, তার ব্যক্তিত্বে সেই আদর্শটা খুঁজে পেয়েছি।’ সোহানা সাবা বলেন, ‘দিদির সিনেমায় কাজ করতে এসে যাত্রা সম্পর্কে আমার বিষদ জানা হলো এবং সবচেয়ে বড় কথা হলো আমার বাবা একজন মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। এই সিনেমায় মুক্তিযুদ্ধকে তুলে আনা হয়েছে, তাই সিনেমাটির প্রতি আমার অন্যরকম আবেগ রয়েছে।’ জানা যায়, আগামী ৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত জাবরায় সিনেমাটির শুটিং চলবে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।