‘অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ এখন অপ্রতিরোধ্য’

80

স্বল্পোন্নত থেকে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা অর্জন : চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুর, ঝিনাইদহে উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন
সমীকরণ প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুর ও ঝিনাইদহসহ সারা দেশে স্বাধীনতার এই সুবর্ণজয়ন্তীতে ‘বাংলাদেশের এক অনন্য অর্জন, স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ’ শীর্ষক দুই দিনব্যাপী উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল শনিবার সারা দেশে উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন উপলক্ষে জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসন র‌্যালি, আলোচনা সভাসহ নানা কর্মসূচির পালন করেছে। আজ রোববার বিকেল পর্যন্ত এই উন্নয়ন মেলা চলবে।
চুয়াডাঙ্গা:
উন্নয়নশীল বাংলাদেশের মর্যাদা অর্জন করায় চুয়াডাঙ্গায় বর্ণাঢ্য র‌্যালি, আলোচনা সভা ও দুইদিনব্যাপী উন্নয়ন কার্যক্রম প্রদর্শনী-২০২১ এর আয়োজন করা হয়েছে। শনিবার (২৭ মার্চ) সকাল ১০টায় চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বর থেকে বর্ণাঢ্য এক র‌্যালি বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদিক্ষণ শেষে জেলা শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গণে এসে শেষ হয়। শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গণে ফিতা কেটে দুই দিনব্যাপী উন্নয়ন কার্যক্রম প্রদর্শনী-২০২১ এর উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার। পরে, শিল্পকলা একাডেমী প্রাঙ্গণের মুক্তমঞ্চে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মনিরা পারভীনের সভাপতিত্বে ‘বাংলাদেশের এক অনন্য অর্জন, স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, শূন্য থেকে যাত্রা শুরু করে বাংলাদেশ এখন অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় অপ্রতিরোধ্য। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতির পিতার জন্মের শতবছরের এই মাহেন্দ্রক্ষণে আমরা স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে উন্নীত হতে পেরেছি। যারা বাংলাদেশকে একসময় তলাবিহীন ঝুড়ি বা ব্যর্থ রাষ্ট্র হিসেবে চিহ্নিত করার চেষ্টা করেছিল, তাদেরকে মিথ্যা প্রমাণ করে বাংলাদেশ এখন বিশ্বে শুধু অর্থনৈতিক উন্নয়নের রোল মডেলই নয়, স্বাস্থ্য, শিক্ষা, নারীর ক্ষমতায়নে বহু দেশকে পিছনে ফেলে অনেকদূর এগিয়ে গেছে। স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছর পূর্তিতে এই অর্জন অনেক আনন্দের ও গৌরবের।’
তিনি আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর প্রজ্ঞা ও দূরদর্শী নেতৃত্বে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে আমাদের সামনে এগিয়ে যেতে হবে। আমরা যেন আমাদের পরবর্তী প্রজন্মকে উপহার দিতে পারি একটি সুখী, সমৃদ্ধ ও অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ- আজকের দিনে এই হোক আমাদের দৃপ্ত শপথ।
আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন, চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আবু তারেক, চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার মেয়র জাহাঙ্গীর আলম মালিক খোকন, চুয়াডাঙ্গা সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আজিজুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান, বীর প্রতীক সম্মাননাপ্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা অবসরপ্রাপ্ত সুবেদার মেজর সাইদুর রহমান, জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. গোলাম মোস্তফা, জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক আলী হাসান।
আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সাজিয়া আফরিন, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাদিকুর রহমান, সদর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ইসরাত জাহান, নেজারত ডেপুটি কালেক্টর আমজাদ হোসেন, জেলা তথ্য অফিসার আমিনুল ইসলামসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি দপ্তরের কর্মকর্তারা।
আলমডাঙ্গা:

আলমডাঙ্গায় উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দুই দিনব্যাপী উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল শনিবার আলমডাঙ্গা উপজেলা পরিষদ চত্বরে এই মেলার উদ্বোধন করেন আলমডাঙ্গা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসেন। এরপর সেখানে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পুলক কুমার মণ্ডলের সভ্পতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন আলহাজ্ব আয়ুব হোসেন।
সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. সালমুন আহম্মেদ ডন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজী মারজাহান নিতু, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) হুমায়ন কমিশনার, উপজেলা স্বাস্থ ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. জিয়াউদ্দিন আহম্মদ, আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) মাহফুজুর রহমান। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, আলমডাঙ্গা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. আব্দুল্লাহিল কাফি, মৎস কর্মকর্তা ফতেমা কামরুন্নাহার আখি, সমাজসেবা কর্মকর্তা আফাজ উদ্দিন, কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা সোহেল রানা, মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা মাকসুরা জান্নাত প্রমুখ।
দামুড়হুদা:

স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণে দামুড়হুদায় শুরু হয়েছে দুই দিনব্যাপী উন্নয়ন মেলা। দামুড়হুদা উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে গতকাল শনিবার বেলা ১১টার দিকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা পরিষদ চত্বরে এসে শেষ হয়। পরে সেখানে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলি মুনছুর বাবু মেলার শুভ উদ্বোধন করেন। এসময় দামুড়হুদা উপজেলা নির্র্বাহী কর্মকতা দিলারা রহমানের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, জীবননগর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) মো. মহিউদ্দীন, আব্দুল ওদুদ শাহ ডিগ্রী কলেজের অধাক্ষ্য কামাল হোসন, প্রাণিসম্পদ কর্মকতা ডা. মশিউর রহমান, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল মতিন, কৃষি কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান মনির, উপজেলা প্রশাসনিক কর্মকর্তা জিন্নাত আলি, উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হযরত আলিসহ উপজেলার বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা ও সাংবাদিকবৃন্দ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা হারুন-অর-রশিদ।
জীবননগর:
বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়শীল দেশে উত্তরণ করায় জীবননগরে র‌্যালি, আলোচনা সভা ও দুই দিনব্যাপী উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় জীবননগর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে একই স্থানে এসে শেষ হয়। পরে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় জীবননগর উপজেলা নির্বাহী কর্তকর্তা এস এম মুনিম লিংকনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী হাফিজুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জীবননগর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম ঈশা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েসা সুলতানা লাকী, জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাইফুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা দলিল উদ্দিন দুলু। আলোচনা সভা শেষে উপস্থিত অতিথিরা উপজেলা চত্বরে দুই দিনব্যাপী উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করেন।
মেহেরপুর:

মেহেরপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ‘স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল বাংলাদেশ’ শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে মেহেরপুর শহীদ সামসুজ্জোহা নগরউদ্যান মফিজুর রহমান মুক্তমঞ্চে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক ড. মোহাম্মদ মুনসুর আলম খানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় জুমের মাধ্যমে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন এমপি।
মেহেরপুর সদর উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মাসুদুল আলমের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, মেহেরপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী গোলাম রসুল, সিভিল সার্জন ডা. মো. নাসির উদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামিরুল ইসলাম, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাড. ইয়ারুল ইসলাম, পৌর মেয়র মাহফুজুর রহমান রিটন, মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আব্দুল হালিম, যুগ্ম সম্পাদক অ্যাড. ইব্রাহিম শাহীন, পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) পল্লব ভট্টাচার্য্য, প্রফেসর হাসানুজ্জামান মালেক, জেলা জাতীয় মহিলা সংস্থার সভানেত্রী শামীম আরা হীরা প্রমুখ।
এদিকে, স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল বাংলাদেশের মর্যাদা অর্জন করায় মেহেরপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দুই দিনব্যাপী উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল শনিবার দুপুরের দিকে মেহেরপুর ড. শহীদ সামসুজ্জোহা নগর উদ্যানে জেলা প্রশাসক ড. মোহাম্মদ মুনসুর আলম খান বেলুন উড়িয়ে দু’দিনব্যাপী উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করেন এবং মেলার স্টল ঘুরে দেখেন। এসময় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী গোলাম রসুল, সিভিল সার্জন ডা. মো. নাসির উদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামিরুল ইসলাম, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাড. ইয়ারুল ইসলাম, পৌর মেয়র মাহফুজুর রহমান রিটন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক তৌফিকুর রহমান, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক মৃধা মোজাহিদুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট তুষার কুমার পাল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এফ এম ফয়সাল, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাসুদুল আলম, মেহেরপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল হালিম, যুগ্ম সম্পাদক অ্যাড. ইব্রাহিম শাহীন, পাবলিক প্রসিকিউটর পল্লব ভট্টাচার্য্য, প্রফেসর হাসানুজ্জামান মালেক, জেলা জাতীয় মহিলা সংস্থার সভানেত্রী শামীম আরা হীরা প্রমুখ সেখানে উপস্থিত ছিলেন। এর আগে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রা শেষে ড. শহীদ সামসুজ্জোহা নগর উদ্যানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মুর‌্যালে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। মেলায় মেহেরপুর জেলার বিভিন্ন দপ্তরের ৫৬টি স্টল স্থান পেয়েছে।
অপরদিকে, উন্নয়ন মেলা উপলক্ষে মেহেরপুর পৌরসভার মেয়র মাহফুজুর রহমান রিটনের নেতৃত্বে বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। বাদ্যের তালে তালে র‌্যালিটি পৌরসভা প্রাঙ্গণ থেকে শুরু হয়ে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে মেহেরপুর ড. শহীদ সামসুজ্জোহা নগর উদ্যানে গিয়ে শেষ হয়। র‌্যালির অগ্রভাগে ঘোড়া এবং টমটম, ১০ নারীর হাতে জাতীয় পতাকা বহনসহ বিশাল একটি জাতীয় পতাকা দিয়ে সুসজ্জিত করা হয়। র‌্যালিতে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক শহিদুল ইসলাম পেরেশান, প্যানেল মেয়র শাহিনুর রহমান রিটন, কাউন্সিলর নুরুল আশরাফ রাজিব, জাফর ইকবাল, সৈয়দ মঞ্জুরুল কবীর রিপন, মীর জাহাঙ্গীর হোসেন, হামিদা খাতুন, আল্পনা খাতুনসহ পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ অংশগ্রহণ করেন।
মুজিবনগর:


স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণে মুজিবনগরে দু’দিনব্যাপী উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে মুজিবনগর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বেলা ১১টার দিকে উপজেলা চত্বর থেকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুজন সরকারের নেতৃত্বে একটি র‌্যালি বের হয়ে প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে মেলা চত্বরে ফিতা কেটে উন্নয়ন মেলার উদ্বোধন করা হয়। পরে মেলা চত্বরে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
মুজিবনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুজন সরকারের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম মোল্লা, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাজমুল আলম, উপজেলা কৃষি অফিসার আনিছুজ্জামান খান, মুজিবনগর থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল হাশেম, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা বিপ্লব কুমার কুন্ড, বাগোয়ান ইউপি চেয়ারম্যান আয়ুব হোসেন প্রমুখ। স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল বাংলাদেশ শীর্ষক দুদিনব্যাপি উন্নয়ন মেলায় উপজেলার বিভিন্ন দপ্তর ও সংস্থার ৩৭টি স্টল অংশগ্রহণ করছে।
ঝিনাইদহ:
‘বাংলাদেশের এক অনন্য অর্জন, স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ’ এ শ্লোগানে ঝিনাইদহে ২ দিন ব্যাপী উন্নয়ন মেলা শুরু হয়েছে। গতকাল শনিবার জেলা প্রশাসনের আয়োজনে শহরের পুরাতন ডিসি কোর্ট চত্বর থেকে একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি শহরের বিভিন্ন সড়ক ঘুরে একই স্থানে এসে শেষ হয়। পরে সেখানে বেলুন ও কবুতর উড়িয়ে মেলার উদ্বোধন করা হয়।
উদ্বোধন শেষে অতিথিবৃন্দ মেলায় অংশ নেওয়া বিভিন্ন স্টল পরিদর্শণ করেন। পরে পুরাতন ডিসি কোর্ট মুক্তমঞ্চে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক মজিবর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ঝিনাইদহ-১ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল হাই। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সরকারি কেসি কলেজে অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. বিএম রেজাউল করিম, জেলা পরিষদের সচিব রেজাই রাফিন সরকার। আজ রোববার এ মেলা শেষ হবে। মেলায় সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন দপ্তরের ৬০ টি স্টল স্থান পেয়েছে।
কালীগঞ্জ:
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে দু’দিন ব্যাপি উন্নয়ন মেলা শুরু হয়েছে। গতকাল শনিবার সকাল ১০ টায় কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয় মেলার উদ্বোধন করেন ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনার। স্বল্পউন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের অর্জন ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদ্যাপন উপলক্ষে আয়োজিত এই মেলাতে উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন দপ্তরের সেবা মূলক কাজের বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করা হয়। আজ রোববার বিকালে দুই দিন ব্যাপী মেলা শেষ হবে।
এর পূর্বে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে এক আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার সূবর্ণা রানীর সাহার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম জাহাঙ্গীর সিদ্দিকী ঠাণ্ডু ও উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শিবলী নোমানী। অনুষ্টানে মুল আলোচনা ও উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে বক্তব্য দেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোহায়মেন আক্তার, প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. এ এস এম আতিকুজ্জামান ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মধু সূদন সাহা, উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা কৌশিক খানসহ উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তারাগণ।