চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ১৮ অক্টোবর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

অভিষেকেই আলোকিত হার্দিক পাণ্ডিয়া

সমীকরণ প্রতিবেদন
অক্টোবর ১৮, ২০১৬ ১:২৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

36137_Pandya

খেলাধুলা ডেস্ক: একই সমীকরণে মিলিত হলেন ভারতের কিংবদন্তি অলরাউন্ডার কপিল দেব ও হার্দিক পান্ডিয়া। ১৯৭৮ সালের ১৬ অক্টোবর ভারতের হয়ে টেস্ট অভিষেক হয় কপিল দেবের। ফয়সালাবাদে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিপক্ষে নিজের প্রথম ম্যাচ খেলেন তিনি। সেই একই দিনে ২০১৬ সালে ওয়ানডে অভিষেক হলো অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়ার। ধর্মশালায় তাকে ওয়ানডে ক্যাপ পরিয়ে দেন কিংবদন্তি কপিল দেব। ভারতীয় প্রিমিয়ার লীগে নিয়মিত দারুণ নৈপুণ্য দেখানোয় অভিষেকের আগেই পান্ডিয়াকে নিয়ে ছিল অনেক আলোচনা। তাকে নিয়ে কেন এতা আলোচনা তা নিজের প্রথম ওয়ানডেতেই প্রমাণ করে দিলেন। ৩৮ বছর আগে কপিল দেব নিজের অভিষেকে মাত্র এক উইকেট পেলেও পন্ডিয়া দেখালেন দুর্দান্ত নৈপুণ্য। ব্যাট হাতে এদিন তার মাঠে নামার সুযোগ হয়নি। কিন্তু শুরুতে বল হাতে নিউজিল্যান্ডের ব্যাটিং সাইড গুড়িয়ে দিলেন। ৭ ওভারে ৩১ রান দিয়ে তিনি নেন ৩ উইকেট। নিউজিল্যান্ডকে মাত্র ১৯০ রানে গুটিয়ে দিতে প্রথম ৫ উইকেটের তিনটিই নেন তিনি। এতে ভারতের চতুর্থ খেলোয়াড় হিসেবে ওয়ানডে অভিষেকে ম্যাচসেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হলেন পান্ডিয়া। ভারতের হয়ে সর্বশেষ অভিষেকে ম্যাচসেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার পান লোকেশ রাহুল এ বছরের শুরুতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। এর আগে ২০১৩ সালে মোহিত শর্মা এবং সর্বপ্রথম ১৯৮০ সালে সন্দ্বীপ পাতিল এই কৃতিত্ব দেখান। ওয়ানডে অভিষেকে ভারতের চতুর্থ সেরা বোলিং ফিগার হার্দিক পান্ডিয়ার। অভিষেকে ২১ রানে ৩ উইকেট নিয়ে সবার ওপরে রয়েছেন নোয়েল ডেভিড। ১৯৯৭ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিনি এই কৃতিত্ব দেখান।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।