চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ১০ জানুয়ারি ২০১৭
আজকের সর্বশেষ সবখবর

অন্যের জালিয়াতিতে ভোগান্তির শিকার ঝিনাইদহের এক অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক

সমীকরণ প্রতিবেদন
জানুয়ারি ১০, ২০১৭ ১:২৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

regঝিনাইদহ অফিস: যশোরের জালিয়াতি চক্রের এক সদস্যের জালিয়াতির কারণে ভোগান্তির শিকার হয়ে আদালত আর পুলিশে কাছে ঘুরছেন ঝিনাইদহ সদর উপজেলার হরিপুর গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক আলহাজ্ব এএসএম শরিফুল ইসলাম। এ ঘটনায় ওই শিক্ষক ঝিনাইদহ সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন। জানা যায়, ২০১০সালে কালীগঞ্জের ফিরোজ অটোস থেকে লাল রংয়ের একটি ডিসকোভারী ১০০সিসি মোটরসাইকেল ক্রয় করেন তিনি। ২০১১ সালের ১১অক্টোবর মোটরসাইকেলটি রেজিষ্ট্রেশন করা হয়। যার নং-ঔঐঊঘওউঅঐ-ঐঅ-১২-০৯৫৫। সাইকেলটির চ্যাসিস নং-গউ২উঝচঅততঞডঈ৯৬০৪৪ এবং ইঞ্জিন নং-ঔইগইঞঈ৪১৫৬৪। গত ৬ বছর যাবত তিনি মোটরসাইকেলটি ব্যবহার করে আসছেন। কিন্তু সম্প্রতি ওই স্কুল শিক্ষকের নাম ও মোটরসাইকেলের রেজিষ্ট্রেশন নম্বর ব্যবহার করে যশোরের একটি জালিয়াতি চক্র অন্য একটি মোটরসাইকেল ব্যবহার করছেন। ২০১৬সালে ২৪ ডিসেম্বর রাতে যশোর ট্রাফিক অফিসের সার্জেন্ট নিশিকান্ত বিশ্বাস ভূয়া ওই মোটরসাইকেলসহ যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার খগেন এর ছেলে সুবাষকে আটক করে। পরে মোটরসাইকেলটি জব্দ করে সুবাষকে ছেড়ে দেয়। এ ঘটনায় ট্রাফিক সার্জেন্ট নিশিকান্ত বিশ্বাস জালিয়াত চক্রের সদস্য সুবাষ ও ঝিনাইদহের ওই অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষকের নামে মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় সোমবার যশোরের চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত থেকে জামিন নিয়েছেন। শিক্ষক এসএম শরিফুল ইসলাম জানান, তিনি তার নামে মোটরসাইকেল ব্যবহার করে আসছেন কিন্তু যশোরের একটি জালিয়াত চক্র তার নামে মোটরসাইকেলের ভূয়া কাগজ ব্যবহার করে আসছিল। তাদের সাথে ওই শিক্ষকের কোন যোগাযোগ না থাকার পরও সার্জেন্ট নিশিকান্ত মামলা দিয়েছেন।  শিক্ষক শরিফুলের প্রশ্ন তার নামে যদি বাংলাদেশের অন্যপ্রান্তের কেউ ভূয়া কাগজ তৈরী করেন তাহলে তার দায়ভার তিনি নেবেন কেন। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, যশোরের ট্রাফিক ইন্সপেক্টরের নাম দিয়ে যদি আমি ভূয়া কাগজ তৈরী করি তাহলে তার নামে মামলা হবে কি না? অন্যের জালিয়াতিতে ভোগান্তীর শিকার অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে এর প্রতিকার চেয়েছেন। এ ব্যাপারে ট্রাফিক সার্জেন্ট নিশিকান্ত বিশ্বাসের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করার পর তাকে পাওয়া যায় নি।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।