চুয়াডাঙ্গা বৃহস্পতিবার , ৩০ জুন ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে তিন পান ব্যবসায়ী হাসপাতালে

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জুন ৩০, ২০২২ ৭:১৪ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদক: অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে তিন পান ব্যবসায়ী চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। গতকাল বুধবার রাত সাড়ে আটটার দিকে তাদেরকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তিনজনকেই চিকিৎসা দিয়ে ভর্তি রাখেন। অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়া তিনজন হলেন- চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার সিঅ্যান্ডবি পাড়ার ওয়াজেদ আলীর ছেলে সাইফুল ইসলাম (৩৮), সদর উপজেলার শ্রীকোল বোয়ালিয়া গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে হাসান আলী (২২) ও একই এলাকার আব্দুল খালেক মিয়ার ছেলে লালচাঁদ (২৮)।

জানা যায়, গতকাল সকালে পান বিক্রির জন্য সাইফুল ইসলাম, হাসান আলী ও লালচাঁদ চুয়াডাঙ্গা থেকে ফরিদপুর জেলার একটি পানের হাটে যান। পান বিক্রি শেষে গতকাল বিকেলেই এন ট্রাভেলস পরিবহনের একটি বাসযোগে চুয়াডাঙ্গা ফিরছিলেন। ফেরার সময় বাসের ভেতর থেকে তিনজনই একটি হকারের নিকট থেকে পেয়ারা কিনে খায়। এরপরেই দুজন সম্পূর্ণ চেতনা হারান ও একজন সামান্য অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে বাসের কন্ট্রাক্টর তাঁদেরকে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার ডিঙ্গেদহ বাজারে নামিয়ে দেয়। এসময় স্থানীয়দের সহায়তায় তারা চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আসে। এসময় জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক তিনজনকেই তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগে ভর্তি রাখেন।

অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়া সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘বাসের মধ্যে পেয়ারা কিনে খাওয়ার পরেই আমদের মাথা ঘুরতে শুরু করে। পরে ডিঙ্গেদহে দুজনকে সঙ্গে নিয়ে কন্ট্রাক্টরের সহায়তায় আমি বাস থেকে নেমে হাসপাতালে আসি। আমাদের ৯ হাজার টাকা খোয়া গেলেও বাকি টাকা ঠিক আছে।’

এ বিষয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মুস্তাফিজুর রহমান বলেন, রাত সাড়ে আটটার দিকে তিনজনকে জরুরি বিভাগে নেওয়া হয়। তারা অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েছিলেন বলে জানতে পারি। এর মধ্যে দুজন অচেতন অবস্থায় ছিলেন। অপরজনের চেতনা থাকলেও তিনি ভুল বলছিলেন। জরুরি বিভাগ থেকে তিনজনকেই তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালের পুরুষ মেডিসিন বিভাগে ভর্তি রাখা হয়েছে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।