অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে এবার পুলিশ সদস্য

57

পূর্বাশা পরিবহনের কোচগুলোতে বিভিন্ন সিন্ডিকেট সক্রিয়
জীবননগর অফিস:
জীবননগরে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়েছেন পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) তাপস সরকার। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে ঢাকা থেকে মামলার হাজিরা দিয়ে পূর্বাশা পরিবহনযোগে নিজ কর্মস্থল দর্শনায় আসার পথে এ ঘটনা ঘটে। অজ্ঞান পার্টির খপ্পরের পড়া এসআই তাপস সরকার দর্শনা থানার অন্তর্গত হিজলগাড়ি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ হিসেবে কর্মরত আছেন।
পূর্বাশা পরিবহনের সুপারইভার ফয়সাল আহম্মেদ মিজান বলেন, ‘রোববার দিবাগত রাত একটার দিকে ফেরিঘাটে গাড়ি থেকে নেমেছিলেন এসআই তাপস। এরপর আবার গাড়িতে উঠেছিলেন তিনি। তারপর সকালে দেখি তিনি গাড়ির ছিটে পড়ে আছেন। আমি গাড়ি থেকে তাঁকে নামিয়ে চিকিৎসার জন্য জীবননগর হাসপাতালে ভর্তি করে জীবননগর থানা পুলিশকে সংবাদ দিলে পুলিশ হাসপাতালে ছুটে আসে এবং তাঁর চিকিৎসার সার্বিক ব্যবস্থা করে।’
জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. মোর্তুজা আহম্মেদ বলেন, অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে গুরুতর অসুস্থ পুলিশ সদস্যকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তিনি এখন শঙ্কামুক্ত।
জীবননগর থানার পরিদর্শক (ওসি, অপারেশন) সুখেন্দু বসু বলেন, এসআই তাপস সরকার হিজলগাড়ি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ হিসেবে দায়িত্বরত আছেন। তিনি একটি মামলায় হাজিরা দেওয়ার জন্য ঢাকাতে গিয়েছিলেন। ফেরার পথে এ ঘটনা ঘটে। আমরা বিষয়টি পুলিশ সুপারকে জানিয়েছি এবং তাঁর চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছি। তা ছাড়া এই ঘটনার বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্তপূর্বক এই ঘটনার সাথে যারা জড়িত আছে, তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
উল্লেখ্য, পূর্বাশা পরিবহনের কোচগুলোতে অজ্ঞান পার্টির সদস্যরা বেশ সক্রিয় বলে জানা গেছে। মাঝেমধ্যেই এই পরিবহনের যাত্রীরা অজ্ঞান পার্টি, মলমপার্টিসহ বিভিন্ন সিন্ডিকেট সদস্যদের খপ্পরে পড়ে সর্বশান্ত হন বলেও অভিযোগ রয়েছে।