চুয়াডাঙ্গা বুধবার , ২০ জানুয়ারি ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

অজ্ঞাত যুবকের দায়িত্ব নিলেন এসপি জাহিদ

সমীকরণ প্রতিবেদন
জানুয়ারি ২০, ২০২১ ৯:১৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদক:
জীবননগর উপজেলার শাখারিয়া থেকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার হওয়া যুবকের দেখভালের দায়িত্ব নিলেন চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম জাহিদ। গত রোববার রাতে শাখারিয়া-মোদিনীপুর সড়ক থেকে অচেতন আহত অবস্থায় ওই যুবককে জীবননগর থানা-পুলিশ উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে তাঁর অবস্থার অবনতি হলে গত সোমবার সকালে কর্তব্যরত চিকিৎসক ওই যুবককে উন্নত চিকিৎসার জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে পাঠান। এদিকে, চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তির খবর পেয়ে পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম অজ্ঞাত যুবকের চিকিৎসা ও যাবতীয় দায়িত্ব নেন।
জীবননগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, রোববার রাতে স্থানীয়দের মারফত জানতে পেরে শাখারিয়া-মোদিনীপুর সড়ক থেকে অচেতন আহত অবস্থায় যুবককে উদ্ধার করা হয়। তাঁর পরিচয় পাওয়া যায়নি। তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন। ধারণা করা হচ্ছে সড়কে কোনো যানবাহনের ধাক্কায় আহত হয়েছেন। একেক সময় একেক নাম ও ঠিকানা বলছেন। প্রথমে জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে পরদিন সকালে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়। তিনি আরও বলেন, ঘটনা শোনার পর পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম স্যার তাঁর চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছেন।
চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম বলেন, ধারণা করা হচ্ছে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন ওই যুবক। তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন। নিজে ওই যুবকের চিকিৎসাসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করেছি। তিনি সকলের সহযোগিতা চেয়েছেন।
এদিকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. সাজিদ হাসানসহ স্বেচ্ছাসেবী মাবুদ সরকার সবসময় দেখভাল করছেন। ডা. সাজিদ হাসান বলেন, তাঁর মাথা ও পায়ে আঘাতের চিহ্ন আছে। ধারণা করা হচ্ছে যে, তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন। সবসময় তাঁর খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।