অচেনা হারপ্রীতের কাছে কোহলিদের হার

15

খেলাধুলা প্রতিবেদন:
বাঁহাতি অর্থডক্স স্পিনার হারপ্রীত ব্রারের ঘূর্ণিতে পরাস্ত বিরাট কোহলিদের রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। তার ঘূর্ণি জাদুতে নাকাল কোহলিরা পাঞ্জাব কিংসের বিপক্ষে হারে ৩৪ রানে। এই টুর্নামেন্টে বেঙ্গালুরুর এটি দ্বিতীয় হার। আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় খেলাটি শুরু হয়। এই ম্যাচে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৭৯ রান করে পাঞ্জাব। টার্গেটে খেলতে নেমে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৪৫ রানে থামে বেঙ্গালুরু। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৩৪ বলে ৩৫ রান করেন বিরাট কোহলি। এ ছাড়া রজত পাতিদার ৩০ বলে ৩১ ও হারশাল প্যাটেল ১৩ বলে ৩১ রানের ইনিংস খেলেন। মাঝে গ্ল্যান ম্যাক্সওয়েল, এ বি ডি ভিলিয়ার্স, শাহবাজ আহেমদ ও ড্যানিয়েল স্যামস আউট হন দুই অঙ্কের ঘরে পৌঁছানোর আগেই। হারপ্রীতের কাছে দলটির তিন সেরা ব্যাটসম্যান কোহলি, ম্যাক্সওয়েল ও ডি ভিলিয়ার্স ধরাশায়ী হন। হারপ্রীত একাই ৪ ওভারে ১৯ রান দিয়ে নিয়েছেন ৩ উইকেট। এর আগে মাত্র ২০ টি-টোয়েন্টি খেলা হারপ্রীতে বিধ্বস্ত হয়েছেন কোহলিরা। এ আসরে তিনি এই প্রথম খেলতে নেমেছেন। ৪ ওভারে ১৭ রান দিয়ে ২ উইকেট নিয়েছেন রাভি বিষ্ণুই। এ ছাড়া ১ টি করে উইকেট নিয়েছেন রিলে মেরিডিথ, মোহাম্মদ শামি ও ক্রিস জর্দান। এর আগে পাঞ্জাবের হয়ে ব্যাট হাতে সর্বোচ্চ রানের ইনিংস খেলেন অধিনায়ক রাহুল। তার ব্যাট থেকে আসে অপরাজিত ৯১ রান। ৫৭ বলের ইনিংসটি সাজানো ছিল ৭টি চার ও ৫টি ছয়ে। আহেমদাবাদে দেখা গেছে গেইল ঝড়ও। মাত্র ২৪ বলে ৬টি চার ও ২টি ছয়ে করেন ৪৬ রান। মাঝে নিকোলাস পুরাণ, দীপক হুদা ও শাহরুখ খান আউট হন ০ রান করে। শেষ দিকে ১৭ বলে ২৫ রানের ইনিংস খেলে রাহুলের সঙ্গে অপরাজিত ছিলেন হারপ্রীত ব্রার। বেঙ্গালুরুর হয়ে সর্বোচ্চ ২ উইকেট নেন কাইল জেমিসন। একটি করে উইকেট নেন ড্যানিয়েল স্যামস, যুজবেন্দ্র চাহাল ও শাহবাজ আহমেদ।