৯ দিন পর চুয়াডাঙ্গায় স্বস্তির বৃষ্টি

35

সমীকরণ প্রতিবেদন:
ঘূর্ণিঝড় ফণীর আঘাতের পর বৃষ্টি উধাও হয়েছিল। শুরু হয় প্রচ- তাপ দাহ। এর মধ্যে চলে আসে রমজান মাস। গরমের তীব্রতা বাড়ায় চুয়াডাঙ্গাবাসীর মধ্যে দেখা যায় চরম অস্বস্তি। গরমের কারণে সেই অস্বস্তি দেশের বিভিন্ন অঞ্চলেই দেখা যায়। এই তো দু’দিন আগেও চুয়াডাঙ্গায় তাপমাত্রা ছিল ৩৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গত ৪ মে সর্বশেষ চুয়াডাঙ্গায় বৃষ্টি হয়েছিল। এরপর থেকেই চলছে তাপ দাহ। তাই বৃষ্টির জন্য অপেক্ষা ছিল সবার। অবশেষে গতকাল সোমবার রাতে নয়দিন পর সেই অপেক্ষার অবসান হলো। চুয়াডাঙ্গার বুকে নামে স্বস্তির বৃষ্টি। সেই বৃষ্টিতে প্রশান্তি আসে গরমে হাঁপিয়ে ওঠা শহরবাসীর মধ্যে। আবহাওয়া অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, সোমবার বিকেলে দেশের উত্তরাঞ্চলের পঞ্চগড়, রংপুর, মধ্যাঞ্চলের ময়মনসিংহ, উত্তর পূর্বাঞ্চলে সিলেটে এক দফা কালবৈশাখীর সঙ্গে বৃষ্টি হয়েছে। এ সময় সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায়। সেখানে বৃষ্টিপাত হয় ৫৪ মিলিমিটার। আবহাওয়ার অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, এই বৃষ্টি আরও কয়েক দিন থাকতে পারে।