৩০ টাকা চাওয়ায় বাজারের মধ্যেই স্ত্রীকে তিন তালাক স্বামীর

91

বিস্ময় ডেস্ক:
সবজি কেনার জন্য স্বামীর থেকে ৩০ টাকা চেয়েছিলেন এক নারী। আর এই বিরাট ‘অপরাধে’তাকে তিন তালাক দিলেন স্বামী। এসময় তিনি স্ত্রীকে মারধরও করেন বলেও অভিযোগ উঠেছে। আহত অবস্থায় ৩০ বছরের জায়নবকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। শনিবার ভারতের নয়ডার রাওজি বাজারে এই ঘটনা ঘটে। জানা যায়, ঘটনার দিন সবজি কেনার জন্য স্বামীর কাছে মাত্র ৩০ টাকা চেয়েছিলেন ৩০ বছরের জয়নব। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে তার স্বামী। তর্কাতর্কির এক পর্যায়ে তিনি তিনবার তালাক বলে স্ত্রীর সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটান। এরপর তিনি ওই নারীকে মারধর করে বাড়ি থেকে বের করে দেন। জয়নবের বাবা মুরসলীমের অভিযোগ, শুধু স্বামী নয়, তার শাশুড়ি ননদরাও তার মেয়ের ওপর হামলে পড়েছিলো। তারা তার মেয়েকে মারধরের পাশাপাশি তার কানের দুলও খুলে নেওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু বাবার দেওয়া উপহার না-খোলায় আরও হেনস্থার মুখে পড়তে হয় জায়নাবকে। জয়নবের বিয়ের বয়স ৯ বছর। এই দম্পতির চারটি ছেলেমেয়ে রয়েছে। তবে স্বামী সাবিরের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো ছিল না জয়নবের। প্রায়ই তাকে মারধর করতেন তার স্বামী। এদিকে তালাকের ঘটনায় সাবির ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে দাদরি থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ সাবিরকে গ্রেপ্তার করলেও পরে ছেড়ে দেয়। সাবির ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট থেকে জামিন পাওয়ায় প্রশ্ন তুলেছে জায়নাবের পরিবার। তাদের দাবি, সাবিরকে জামিন দেয়ার বদলে জেলহাজতে পাঠানো উচিত ছিল।