হরিণাকুণ্ডু উপজেলা প্রকৌশলীকে পিটিয়ে আহতের অভিযোগ

22

ঝিনাইদহ অফিস:
হরিণাকুণ্ডু উপজেলা প্রকৌশলীর দায়িত্বে থাকা রওশন হাবিব নামে এক সহকারী উপজেলা প্রকৌশলীকে পিটিয়েছে বলে আওয়ামী লীগ সমর্থিত ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুর রহমানের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে। তিনি হরিণাকুণ্ডুর ফলসি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান। এ ঘটনায় গতকাল সোমবার বিকেলে হরিণাকুণ্ডু থানায় অভিযোগ দিয়েছেন প্রকৌশলী রওশন হাবিব। অভিযোগ করা হয়েছে, চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান একটি ঠিকাদারী কাজের বিল নিয়ে প্রকৌশলী রওশন হাবিবের সঙ্গে বাদানুবাদে লিপ্ত হয়। একপর্যায়ে তাঁকে অফিসের মধ্যে ফেলে মারপিট করেন।
তবে চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান মারপিটের কথা অস্বীকার করে জানান, বিল নিতে গেলে উপজেলা প্রকৌশলী তাঁর কাছে ঘুষ দাবি করেন। এ জন্য তাঁর সঙ্গে তর্ক-বিতর্ক হয়। প্রকৌশলী রওশন হাবিব জানান, হরিণাকুণ্ডু উপজেলা পাঁচটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাজ হচ্ছে। এ জন্য ২ কোটি ২৩ লাখ টাকার বিল এসেছে। ঈদ সামনে করে সব ঠিকাদারকেই কম বেশি বিল পরিশোধ করা হচ্ছে। তিনি বলেন, ফান্ডে ১৬ লাখ টাকা আছে। ফজলু চেয়ারম্যান একাই ১৬ লাখ টাকা নিতে চান। প্রকৌশলী রওশন হাবিবের ভাষ্যমতে, ১৬ লাখ টাকা তিনি ঠিকাদার কবির ও আলাউদ্দীন এবং ফজলুর রহমানের মধ্যে ভাগ করে দিতে চেয়েছিলেন। এ নিয়ে ফজলু চেয়ারম্যান তাঁর ওপর ক্ষিপ্ত হন। প্রকৌশলী রওশন হাবিব অভিযোগ করে দুই মাস আগে মামুন নামে আরেক প্রকৌশলীকে চেয়ারম্যান ফজলুকে মারপিট করেন। কিন্তু আওয়ামী লীগ করার কারণে কেউ বিচার করেনি। এ ব্যাপারে হরিণাকুণ্ডু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান বলেন, উপজেলা প্রকৌশলী একটি অভিযোগ দিয়েছেন। মামলা এখনো রেকর্ড হয়নি। তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ কর হবে।