হত্যা-নির্যাতন বন্ধসহ সীমান্ত রক্ষায় ১১ সিদ্ধান্ত

43

মুজিবনগরে বিজিবি-বিএসএফ ব্যাটালিয়ন কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠক
নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গা ব্যাটালিয়নের (৬ বিজিবি) অধীনস্থ মেহেরপুর মুজিবনগরে বিজিবি-বিএসএফ ব্যাটালিয়ন কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বুধবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দেড়টা পর্যন্ত মুজিবনগর বিওপি’র ১০৫নং মেইন পিলারের নিকট চলে এ বৈঠক। এতে প্রতিপক্ষের ৮১, ৮৪ ও ৫৪ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের কমান্ডাররা অংশ নেন। বিজিবি’র পক্ষে বৈঠকের নেতৃত্বে ছিলেন চুয়াডাঙ্গা ব্যাটালিয়নের (৬ বিজিবি) পরিচালক লে, কর্ণেল ইমাম হাসান মৃধা এবং প্রতিপক্ষ বিএসএফ-এর পক্ষে নেতৃত্ব দেন ৮১, ৮৪ এবং ৫৪ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের কমান্ড্যান্ট যথাক্রমে শ্রী রহিতাশবা মিনা, শ্রী নন্দন সিংহ বিষ্ট এবং ভারপ্রাপ্ত কমান্ড্যান্ট শ্রী মধুকার জুয়েল। এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা ব্যাটালিয়নের (৬ বিজিবি) অতিরিক্ত পরিচালক নিস্তার আহমেদ এবং বিএসএফ-এর পক্ষে ষ্টাফ অফিসার শ্রী আখিল বেনার্জি, শ্রী মদন লাল আরয়া, শ্রী ভারাত সিংহ ও শ্রী অসিয়ার প্রসাদ।
বৈঠক থেকে উভয় দেশের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রক্ষা এবং সীমান্ত রক্ষায় ১১ দফা সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সিদ্ধান্তগুলো হচ্ছে- সুষ্ঠু সীমান্ত ব্যবস্থাপনা, তারকাটার বেড়া না কাটা, অবৈধ অনুপ্রবেশ রোধে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করা, গরু চোরাচালান প্রতিরোধ করা, ভারত হতে কোন মাদকদ্রব্য বাংলাদেশের অভ্যন্ততরে না আসা, ইয়াবা পাচার প্রতিরোধে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করা, জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা, সীমান্ত শুন্য রেখা হতে ১৫০ গজের মধ্যে তিন ফুটের উপরে ফসলাদি চাষাবাদ না করার ব্যপারে ব্যবস্থা গ্রহণ করা, বিজিবি ও বিএসএফ’র সমন্বয়ে সমন্বিত টহল করা, উভয় দেশের সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর মধ্যে সুসম্পর্ক বজায় থাকা এবং কোন অবস্থাতেই যেন বাংলাদেশী/ভারতীয় নাগরিক নিহত/আহত তথা নির্যাতনের শিকার না হয় সে ব্যাপারে আলোচনা হয়। পরিশেষে শান্তিপূর্ণভাবে পতাকা বৈঠক শেষ হয়।