হত্যার হুমকিতে যা বললেন নুসরাত

10

বিনোদন প্রতিবেদন:
টালিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ও সংসদ সদস্য নুসরাত জাহান এবার দুর্গাপূজায় মহাঅষ্টমীতে স্বামীর সঙ্গে পূজাম-পে গিয়ে অঞ্জলি দেন। একজন মুসলিম হয়ে পূজায় অংশ নেয়ায় তাকে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে। হত্যার হুমকির নিয়ে নুসরাত বলেন, বিষয়টি নিয়ে একদম ভাবছি না। কারণ যারা এই ধরনের কথা বলেন তারা এই কথা পর্যন্ত থাকেন। তবে বিষয়টি নিয়ে আমি আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করব। তাছাড়া ধর্ম নিয়ে কারও বাড়াবাড়ি করা একদম উচিৎ নয়। আমি মুসলিম না হিন্দু তা মানুষের ব্যবহারের ওপর নির্ভর করবে। তাই ধর্মের বিষয়টি নিয়ে কোনো বাড়াবাড়ি আমিও করতে চাই না। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এই সময়ের প্রতিবেদনে বলা হয়, রোববার মহাঅষ্টমীতে শাড়ি ও সিঁদুর পরে তিনি স্বামীর সঙ্গে পূজা ম-পে গিয়ে পূজা দেন। চোখ বন্ধ রেখে হাতজোড় করে অঞ্জলির মন্ত্রপাঠ ও প্রার্থনা করেন। এরপর তিনি স্বামীর সঙ্গে ঢাক বাজান এবং নাচেনও। সামাজিক ও গণমাধ্যমগুলোতে তার এই ভিডিও ও ছবি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। প্রতিবেদনে বলা হয়, ভারতের ন্যাশনাল কংগ্রেসের আসাম রাজ্যের আইটি সেলের এক কর্মী নুসরাতকে হত্যার হুমকি দিয়েছেন। তবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মন্তব্য করছেন নুসরাতের পক্ষে, তারা দাবি করেন সালমান, শাহরুখ, আমির খানরা পূজায় অংশ নিলে কেনো কথা হয় না। ভারতের দারুল উলুম দেওবন্দের একজন প-িত মুফতি আসাদ কাশমী বলেন, ‘এটা নতুন কিছু নয়। তিনি হিন্দু দেবতাকে পূজা দিচ্ছেন, যদিও ইসলামের অনুসারীদের প্রতি নির্দেশ রয়েছে একমাত্র আল্লাহ ছাড়া আর কারো উপাসনা না করার। তিনি যা করেছেন তা হারাম। নুসরাত তার ধর্মের বাইরে বিয়ে করেছেন।’