হঠাৎ ফোনে বন্ধুকে সাথে নিয়ে মোটরসাইকেলযোগে আমঝুপি যেতে গিয়ে বিপত্তি এলোপাতাড়ি কোপে সাংবাদিক শাহাদৎ রক্তাক্ত জখম

291

বারাদি প্রতিনিধি: মেহেরপুরে শাহাদৎ হোসেন (৩৭) নামের এক সাংবাদিককে কুপিয়ে জখম করেছে দূর্বৃত্ত্বরা। সে চুয়াডাঙ্গা থেকে প্রকাশিত দৈনিক নতুন খবর পত্রিকার গাংনী উপজেলার ধানখোলা ইউনিয়নের প্রতিনিধি ছিলেন। রবিবার রাত ৮ টার দিকে আমঝুপি-পোড়াপাড়া সড়কের ইসলামনগর মাঠে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় দূর্বৃত্ত্বরা একটি টিভিএস মোটরসাইকেল ও নগদ ৩৮ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় বলে দাবি তার পরিবারের। অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে। সে গাংনী উপজেলার ঢেপা পাঙ্গাসীপাড়ার গ্রামের মৃত আবুল কামেরের ছেলে। আহত শাহাদৎ হোসেনের বন্ধু রং মিস্ত্রী রফিজুল জানান, রাতে একটি পালসার ও একটি টিভিএস মোটরসাইকেল যোগে তারা দুইজন আমঝুপি থেকে ঢ্যাপা গ্রামের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। পথিমধ্যে ইসলামনগর মাঠের কাছে পৌঁছালে একদল সন্ত্রাসী তাদের অস্ত্রের মূখে জিম্মি করে। এ সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে শাহাদৎকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। এক পর্যায় তাদের কাছে থাকা নগদ ৩৮ হাজার টাকা ও একটি টিভিএস মোটর সাইকেল ছিনিয়ে নেয় সন্ত্রাসীরা। তাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসে। পরে তাদের উদ্ধার করে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি হলে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে রাজাশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক আবু এহসান রাজু জানান, তার শরীরের বিভিন্ন অংশে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন জায়গায় রড দিয়ে পেটানোর চিহ্ন রয়েছে। অবস্থা আশংকাজনক। এদিকে শাহাদতের স্ত্রী জানান, সন্ধ্যায় তারা একসঙ্গে খাওয়া দাওয়া করছিলেন। এ সময় হাঠৎ একটি ফোন আসলে সে ও তার বন্ধু মোটরসাইকেলযোগে আমঝুপির  উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। মেহেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইকবাল বাহার চৌধুরী জানান, বিষয়টি ছিনতাই না পূর্ব শত্র“তার জের তা ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে। দোষীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনার আশ্বাস দেন তিনি।