স্মার্টফোন বাজারে কে এগোল, কে পেছাল?

43

প্রযুক্তি ডেক্স:
চলতি বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিক, অর্থাৎ এপ্রিল থেকে জুন—এ তিন মাসে বৈশ্বিক স্মার্টফোন বিক্রি ১ দশমিক ৭ শতাংশ কমেছে। বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান গার্টনার ইনকরপোরেশনের তথ্য অনুযায়ী, বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে ৩৬ কোটি ৮০ লাখ ইউনিট স্মার্টফোন বিক্রি হয়েছে। কম দামের স্মার্টফোন মডেলগুলোয় প্রিমিয়াম ফোনের ফিচার হিসেবে একাধিক লেন্স, বেজেলহীন ডিসপ্লে, বড় ব্যাটারিসুবিধা যুক্ত হওয়ায় প্রিমিয়াম ফোনের বিক্রি কমছে। সে তুলনায় বাড়ছে মিড রেঞ্জ ও লো এন্ডের স্মার্টফোনের চাহিদা। স্মার্টফোন বাজারে শীর্ষ পাঁচ ব্র্যান্ডের মধ্যে চীনের হুয়াওয়ে ও দক্ষিণ কোরিয়ার স্যামসাং বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে বাজার দখলে এগিয়ে রয়েছে। জেনে নিন ৫ ফোনের বাজারের অবস্থান। স্যামসাং: স্মার্টফোন বাজারের শীর্ষে থাকা স্যামসাং বৈশ্বিক স্মার্টফোন বাজারের দখল ধরে রেখেছে। গার্টনারের তথ্য অনুযায়ী, সাড়ে সাত কোটি ইউনিট স্মার্টফোন বিক্রি করে বাজারের ২০ দশমিক ৪ শতাংশ দখলে রেখেছে স্যামসাং। গত বছরের একই সময়ে ৭ কোটি ২০ লাখ ইউনিট ফোন বিক্রি করে বাজারে ১৯ দশমিক ৩ শতাংশ দখল করেছিল প্রতিষ্ঠানটি। স্যামসাংয়ের গ্যালাক্সি ‘এ’ সিরিজ এ ক্ষেত্রে ভালো করেছে। এ সময় অবশ্য স্যামসাংয়ের ফ্ল্যাগশিপ এস১০ মডেলের চাহিদা কমতে শুরু করেছে। বছরজুড়ে প্রবৃদ্ধি ধরে রাখা স্যামসাংয়ের জন্য চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়াবে বলে ধারণা করছেন গার্টনারের বিশ্লেষকেরা। হুয়াওয়ে: স্মার্টফোন বাজারের দ্বিতীয় অবস্থান ধরে রেখেছেন চীনা প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে। এপ্রিল থেকে জুন মাসে ৫ কোটি ৮০ লাখ ইউনিট স্মার্টফোন বিক্রি করে বাজারের ১৫ দশমিক ৮ শতাংশ দখল করেছে প্রতিষ্ঠানটি। গত বছরের একই সময়ে ৪ কোটি ৯৮ লাখ ইউনিট ফোন বিক্রি করে বাজারের ১৩ দশমিক ৩ শতাংশ দখল করেছিল হুয়াওয়ে। সে তুলনায় এ বছর হুয়াওয়ের প্রবৃদ্ধি ভালো। অ্যাপল: বাজারের তিন নম্বর অবস্থানে রয়েছে আইফোন নির্মাতা অ্যাপল। কয়েক বছর ধরে আইফোনের বিক্রি কমছে। অবশ্য চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকের তুলনায় দ্বিতীয় প্রান্তিকে আইফোন বিক্রির হার বেড়েছে। বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে ৩ কোটি ৮০ লাখ ইউনিট আইফোন বিক্রি করে বাজারের সাড়ে ১০ শতাংশ দখল করে রেখেছে প্রতিষ্ঠানটি। গত বছরে এ সময় অ্যাপলের দখলে ছিল বাজারের ১১ দশমিক ৯ শতাংশ। শাওমি: বর্তমানে স্মার্টফোন বাজারের চার নম্বরে রয়েছে চীনা স্মার্টফোন নির্মাতা শাওমি। গত প্রান্তিকে ৩ কোটি ৩১ লাখ ইউনিট স্মার্টফোন বিক্রি করেছে প্রতিষ্ঠানটি। গার্টনারের প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত বছরের তুলনায় এ বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে কিছুটা উন্নতি হয়েছে শাওমির। গত বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে ৩ কোটি ২৮ লাখ ইউনিট ফোন বিক্রি করেছিল তারা। গত বছরের তাদের বাজার দখল ছিল ৮ শতাংশ, যা এ বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে ৯ শতাংশ হয়েছে। অপো: স্মার্টফোনের বাজারের ৫ নম্বর স্থানটি আরেকটি চীনা প্রতিষ্ঠানের। বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে ২ কোটি ৮১ লাখ ইউনিট স্মার্টফোন বিক্রি করে পঞ্চম স্থানে রয়েছে অপো। গত বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকের তুলনায় এ বছরে স্মার্টফোন বিক্রি কিছুটা কমেছে প্রতিষ্ঠানটির। গত বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে ২ কোটি ৮৫ লাখ ফোন বিক্রি করেছিল অপো। অপোর বাজার দখল ৭ দশমিক ৬ শতাংশে এসে দাঁড়িয়েছে।