স্বামীর আগে হাঁটায় স্ত্রীকে ডিভোর্স

332

বিস্ময় ডেস্ক: বারবার নিষেধ করা সত্ত্বেও স্ত্রী তার সামনে সামনে হাঁটার কারণে ক্ষেপে গিয়ে স্ত্রীকে তালাক দিয়েছেন এক সৌদি বাসিন্দা। তালাক প্রদানকারী সেই স্বামীর নাম জানা যায় নি, তিনি নাকি বারবার তার স্ত্রীকে এক কদম পেছনে থাকতে বলছিলেন, কিন্তু তারপরও সামনেই হাঁটতে থাকেন স্ত্রী। এরপরই তিনি স্ত্রীকে তালাক দিয়ে দেন।
সৌদি আরবে সাম্প্রতিক সময়ে বিচ্ছেদের সংখ্যা খুবই বেড়ে গেছে। আর সেসবের কারণ বেশিরভাগই খুব নগণ্য। ফলে সেখানে নববিবাহিত দম্পতিদের মধ্যে কাউন্সেলিংয়ের প্রয়োজনীয়তা আরো বেড়ে গেছে বলে মনে করেন অনেকে।
এর আগেও বন্ধুদের জন্য আয়োজন করা রাতের খাবারে স্ত্রী ভেড়ার মাথা দিয়ে রান্না করা একটি খাবার মূল খাবারের সঙ্গে পরিবেশন না করায় স্ত্রীকে তালাক দেন সৌদির এক নাগরিক।
সেই নারী জানায়, বন্ধুরা চলে যাওয়ার পরে খুবই রাগান্বিত হন তার স্বামী। ডিনারের খুবই গুরুত্বপূর্ণ খাবারটি পরিবেশন না করায় তাকে সবার সামনে ছোট করা হয়েছে বলে মনে করেছিলেন তিনি। সৌদি আরবের আরেকটি ঘটনায় দেখা যায়, স্বামী তার স্ত্রীকে তালাক দেন হানিমুনে পায়ে পায়েল পরার অভিযোগে। ওই বিয়ে পরিচালনাকারী কর্মকর্তা হুমুদ আল শিম্মারি বলেন, বিগত দুই বছরে বিচ্ছেদের যেন লাইন লেগেছে। ঐতিহ্য ও সামাজিক মূল্যবোধের বিষয়ে মানুষের ধ্যান ধারণার পরিবর্তন হচ্ছে। আর আধুনিক প্রযুক্তি সেখানে মূল কালপ্রিট হিসেবে কাজ করছে। সৌদি আরবের একজন সোশ্যাল কনসালটেন্ট লতিফা হামিদ বলেন, পরিবারগুলোর উচিত তাদের ছেলে ও মেয়েদের আরো শিক্ষিত করা এবং মানসিক, সামাজিক ও ধর্মীয় সচেতনতার ক্ষেত্রে তাদের সম্পৃক্ত করা। তাহলে ভবিষ্যতে এই ধরনের সমস্যা থেকে স্ত্রীদের রক্ষা করা যাবে।