স্পেন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

14

সমীকরণ প্রতিবেদন:
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত জাতিসংঘ ফ্রেমওয়ার্ক কনভেনশনের ২৫তম বার্ষিক সম্মেলনে যোগ দিয়ে স্পেন থেকে দেশে ফিরেছেন। প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীরা স্থানীয় সময় সকাল ৯টা ৩০ মিনিটে মাদ্রিদের তোরেজন বিমানবন্দর থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইটে রওনা হন। বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানান স্পেনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ও বিশ্ব পর্যটন সংস্থায় বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি হাসান মাহমুদ খন্দকার। বাংলাদেশ সময় মঙ্গলবার দিবাগত রাতে প্রধানমন্ত্রী ঢাকা পৌছান। তিন দিনের সরকারি সফরে রোববার স্পেনে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সফরে তিনি ছিলেন মাদ্রিদের হোটেল ভিলা ম্যাগনায়। ওইদিন সন্ধ্যায় ওই হোটেলেই প্রবাসী বাংলাদেশীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় করেন প্রধানমন্ত্রী। পরদিন সোমবার সকালে স্পেনের ফেরিয়া দি মাদ্রিদে (আইএফইএমএ) হলে কপ-২৫ সম্মেলনের সাধারণ আলোচনায় যোগ দেন তিনি। জলবায়ু পরির্বতনের প্রভাব মোকাবেলায় বাংলাদেশের লড়াইকে রোহিঙ্গা সঙ্কট কীভাবে আরও কঠিন করে তুলেছে আলোচনায় তা তুলে ধরেন তিনি। সম্মেলনের উদ্বোধনী দিনে মার্শাল আইল্যান্ডসের প্রেসিডেন্ট হিলডা হাইনের প্রস্তাব গ্রহণ করে পরবর্তী ক্লাইমেট ভালনারেবল ফোরামের (সিভিএফ) প্রেসিডেন্ট হিসেবে আগামী বছর দায়িত্ব নিতে সম্মত হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই দিন দুপুরে শেখ হাসিনা মাদ্রিদে নেদারল্যান্ডসের প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুটের সঙ্গে বৈঠক করে রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠাতে সহযোগিতা চান। কাছাকাছি সময়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে সাক্ষাৎ করে ইউরোপীয় ইউনিয়ন প্রেসিডেন্ট ডেভিড মারিয়া সাসোলি জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবেলায় বাংলাদেশকে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার আশ্বাস দেন। বিকালে স্পেনের প্রেসিডেন্ট পেদ্রো সানচেজের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। সন্ধ্যায় রাজ প্রাসাদে স্পেনের রাজা ও রানি আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন শেখ হাসিনা। চিলির সভাপতিত্বে এবং স্পেনের সার্বিক সহযোগিতায় মাদ্রিদে ২ ডিসেম্বর শুরু হওয়া থেকে জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত জাতিসংঘ ফ্রেমওয়ার্ক কনভেনশনের ২৫তম বার্ষিক সম্মেলন (ইউএনএফসিসিসি) চলবে ১৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত। রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানদের অংশগ্রহণে এই সম্মেলন ‘কপ-২৫’ নামে পরিচিত।