স্পেনে করোনায় আক্রান্ত প্রায় ১ লাখ প্রাণীকে মেরে ফেলার সিদ্ধান্ত

52

বিশ্ব ডেস্ক:
স্পেনের খামারে মিনক নামের বেজি জাতীয় এক প্রাণীর মধ্যে অধিকাংশই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। তাদের সংখ্যা প্রায় এক লাখ। এ অবস্থায় প্রাণীগুলোকে বাছাই করে মেরে ফেলার সিদ্ধান্ত দিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগ। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এক প্রতিবেদনে বলছে, গত মে মাসে স্পেনের আরাগান প্রদেশের এক খামার কর্মচারীর স্ত্রী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর সেখানে মহামারির প্রাদুর্ভাবের সন্ধান পাওয়া যায়। এরপর তার স্বামীসহ আরো ছয়জন কৃষক করোনায় আক্রান্ত হন। ওই খামারে শ্রমিকরা করোনায় সংক্রমিত হওয়ায় মিনকগুলোকে তাদের থেকে আলাদা রাখা হয়েছিল। কিন্তু গত ১৩ জুলাই পরীক্ষায় জানা যায়, মিনক নামক ওই প্রাণীগুলো করোনায় সংক্রমিত হয়েছে।
এরপর দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগ প্রায় ৯২ হাজার ৭০০ অর্ধ-জলজ এই প্রানীগুলোকে মেরে ফেলার জন্য আলাদা করার নির্দেশ দেয়। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ওই ফার্মের পরিচালনাকারী সংস্থাটিকে আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেয়া হবে। স্পেনের মাদ্রিদ ও কাতালোনিয়ার পাশাপাশি আরাগান প্রদেশটি করোনভাইরাসের প্রধান হটস্পট হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে। স্থানগুলোতে মহামারি শুরু থেকে দুই লাখ ৫০ হাজারেরও বেশি আক্রান্ত হয়েছে ও মৃত্যু হয়েছে ২৮ হাজার। এদিকে বৃহস্পতিবার আরাগানের কৃষিমন্ত্রী জোয়াকুইন ওলোনা সাংবাদিকদের বলেন, মানবিক সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে এই মিনকগুলো মেরে ফেলার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, প্রাণী থেকে মানুষে ও মানুষ থেকে প্রাণীতে সংক্রমণের সম্ভবনা রয়েছে তবে এটি স্পষ্ট নয়। হতে পারে কোনো আক্রান্ত খামারী শ্রমিক অজান্তেই প্রাণীদের মধ্যে এই রোগটি ছড়িয়ে দিয়েছে। অথবা আরেক তত্ত্ব মতে প্রাণীগুলো থেকেই রোগটি খামারীদের মাঝে ছড়িয়েছে। ইউরোপে ১০ লাখের বেশি মিনকের মাঝে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। তবে এ ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। মিনক ফার্মে এই রোগটি একটি প্রাণী থেকে অন্য প্রাণীতে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। সূত্র : বিবিসি