সোনাসহ সাড়ে ৭ লাখ টাকার মালামাল চুরি!

13

দর্শনায় আবারও বসতবাড়িতে সংঘবদ্ধ চোরেদের হানা
দর্শনা অফিস:
দর্শনায় এবার এক শিক্ষকের বাড়িতে দুঃসাহসিক চুরির ঘটনা ঘটেছে। ঘরের জানালার গ্রিল কেটে নগদ অর্ধলাখ টাকা, সোনা-গয়নাসহ প্রায় সাড়ে ৭ লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে যায় চোরের দল। দর্শনা আনোয়ারপুরে কেরুজ উচ্চবিদ্যায়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক হাবিবুর রহমানের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এতে করে দর্শনা শহরজুড়ে চুরি-ডাকাতি আতঙ্ক বিরাজ করছে। এ চুরির ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।
জানা গেছে, দামুড়হুদার দর্শনা পৌর শহরের হঠাৎপাড়া আনোয়ারপুরে মৃত বানাত আলীর ছেলে কেরুজ উচ্চবিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক হাবিবুর রহমানের বাড়িতে ঈদের আগের দিন রোববার দিবাগত রাতে একদল চোর চক্র দ্বিতল ভবনের সানসেটের ওপর উঠে ঘরের জানালার গ্রিল কেটে একটি ঘরে প্রবেশ করে। ঘরে ঢুকে চোরেরা প্রথমে ওই ঘরের আলমারি, ওয়ার্ডরব ও ড্রেসিং টেবিলের মালামাল তছনছ করে এবং আলামারির মধ্যে থাকা নগদ ৬০ হাজার টাকা, ১২ ভরি সোনা, ২টি ডিজিটাল ক্যামেরা, ১টি স্মার্টফোন, শাড়ি-কাপড়সহ অন্যান্য মালামাল চুরি করে। এতে করে গৃহকর্তার নগদ ৬০ হাজার টাকা, ৫ লাখ ৭০ হাজার টাকা মূল্যের সোনার গয়না, অন্যান্য মালামালসহ সাড়ে ৭ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে। খবর পেয়ে পরদিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন দর্শনা তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ।
এ চুরির ঘটনায় গৃহকর্তার ছেলে ঝন্টু জানান, নগদ ৬০ হাজার টাকা, ১২ ভরি সোনা, ২টি ডিজিটাল ক্যামেরা, ১টি ১২ হাজার টাকা মূল্যের স্মার্টফোন, ৪৫ হাজার টাকার শাড়ি-কাপড়সহ সর্বমোট ৭ লাখ ৫২ হাজার টাকার মালামাল চুরি হয়েছে উল্লেখ করে গতকাল বুধবার দামুড়হুদায় মডেল থানায় একটি মামলা করা হয়েছে।
ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে দর্শনা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মোল্যা মো. সেলিম বলেন, চোর ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে। এদিকে, দর্শনায় একের পর এক চুরির ঘটনায় দর্শনা শহরজুড়ে সর্বত্রই বিরাজ করছে চুরি আতঙ্ক।