সাহায্যের আবেদন

42

হুজাইফা হোসেন, ৩ বছরের এক ফুটফুটে শিশু। গরীব বাবা মায়ের অতি আদরের সন্তান। কিন্তু হঠাৎ করেই আনন্দের মাঝে নেমে এল এক দুর্দশার ছায়া! হুজাইফা অসুস্থ, চুয়াডাঙ্গার চিকিৎসক’রা প্রাথমিক কিছু চিকিৎসা দিয়ে নিজেদের অপারগতা প্রকাশ করে জানিয়ে দিলেন উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজধানী ঢাকাতে নিতে হবে। বাবা মায়ের মনে নেমে এল চরম দুশ্চিন্তা! আর্থিক অনটনে যার সংসার চলে তার পক্ষে ঢাকাতে গিয়ে চিকিৎসা করানো কষ্টসাধ্য।
যাই হোক আদরের সন্তানের মুখের দিকে তাকিয়ে শেষ সম্বলের কিছু অংশ দিয়ে ছেলের চিকিৎসার জন্য ছুটলেন ঢাকাতে। চিকিৎসা চলছে, হঠাৎই ডাক্তারের কথায় যেন নেমে এল অমানিশার ছায়া। হার্টে ছিদ্র হয়েছে, তিন মাসের ভিতর অবশ্যই অপারেশন করাতে হবে। যার জন্য প্রয়োজন ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকারও অধিক অর্থ। এবার সন্তান টির বাবা মা যেন খেই হারিয়ে ফেললেন, অনেকের কাছেই সাহায্য চেয়েছেন কিন্তু সেরকম কিছুই পাননি। এদিকে দুই মাসের অধিক অতিক্রান্ত হয়ে গেছে, সন্তান ধীরে ধীরে মৃত্যুর দিকে ধাবিত হচ্ছে চোখের সামনে। সামান্য কিছু টাকা বা অপারেশন-এর ব্যবস্থা করে আমরা কি পারিনা একটি ফুটফুটে শিশুর সুন্দর হাসিমাখা মুখকে অম্লান করতে?
আমরা কি পারিনা একটি বাবা মায়ের শেষ ভরসা স্থল হিসেবে পাশে দাঁড়াতে। প্রিয় চুয়াডাঙ্গাবাসী আমাদের বিশ্বাস অবশ্যই আমরা পারি। বিগত দিনের ন্যায় এই বাচ্চাটির সাহায্যার্থে সবাই আসুন বাবা মায়ের করুণ আর্জিতে একটু সহানুভূতির হাত বাড়িয়ে দেই।
বাচ্চাটির বাবার বিস্তারিত ঠিকানা
মো. মিজানুর রহমান
জয়রামপুর নতুনপাড়া, দামুড়হুদা, চুয়াডাঙ্গা
মোবা. ০১৯৩৯৩৩৮৭৫৫।