শিগগিরই মানুষকে ছাড়িয়ে যাবে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা

24

প্রযুক্তি ডেস্ক:
পৃথিবীর উন্নত দেশগুলোতে ব্যবহার শুরু হয়েছে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স (এআই) বা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার। বর্তমানে একাধিক ডিজিটাল প্রযুক্তিতে আমরা আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সের ছাপ দেখতে পাই। বর্তমানে এ প্রসঙ্গে যে ভবিষ্যদ্বাণী করলেন টেসলা ও স্পেস-এক্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ধনকুবের এলন মাস্ক, তা মানবজাতির জন্য আশঙ্কার হয়তো। এলন মাস্কের দাবি, আগামী পাঁচ বছরে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার প্রয়োগে বিশ্বব্যাপী আরো উন্নতি হবে। মানুষের মস্তিষ্কের চেয়ে আরো ‘স্মার্ট’ হবে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা।। সহজ কথায় আগামী ২০২৫ সালের মধ্যে মানুষের বুদ্ধিমত্তাকে ছাড়িয়ে যাবে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা। সম্প্রতি সংবাদমাধ্যম দ্য নিউইয়র্ক টাইমসে এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেন টেসলাপ্রধান। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রসঙ্গে একাধিক আশঙ্কার কথাও বলেন এলন মাস্ক। তিনি বলেন, ‘আমরা এমন সময়ের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি, যেখানে মানুষের চেয়ে এআই অনেক বেশি স্মার্ট। আমি মনে করি, পাঁচ বছরেরও কম সময়ে এ ক্ষেত্রে একটা বড়সড় পরিবর্তন আসতে যাচ্ছে।’ এ পরিবর্তনের ফলে মানবজাতি ‘অস্তিত্ব সংকটে’ পড়তে পারে বলেও মত এলনের। সংবাদমাধ্যম দি ইন্ডিপেনডেন্ট এ খবর জানিয়েছে।
এর আগে ২০১৬ সালেও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার মানুষের ক্ষমতাকে ছাপিয়ে যাওয়ার বিষয়ে একাধিকবার মুখ খুলেছিলেন এলন মাস্ক। তাঁর মতে, এমন সময়ও আসতে পারে, যখন মানুষের মস্তিষ্কও কম্পিউটারের সঙ্গে জুড়ে ফেলা সম্ভব হবে। যার ফলে সে সময় মাস্টার কম্পিউটারের কাছে বর্তমানে বাড়িতে থাকা পোষা প্রাণীর মতো আচরণ করতে বাধ্য থাকবে মানুষ। তাই এ বিষয়ে মানুষকে সদা সতর্ক থাকারও পরামর্শ দেন এলন মাস্ক।