শিগগিরই চার উপজেলা ও পৌরসভায় বর্ধিত সভা

79

চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপি’র আহ্বায়ক কমিটির আলোচনা সভায় সিদ্ধান্ত
সমীকরণ প্রতিবেদক:
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার আহ্বায়ক কমিটির আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় চুয়াডাঙ্গা চেম্বার ভবন মিলনায়তনে এ আয়োজন করা হয়। জেলা বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক মাহমুদ হাসান খান বাবুর সভাপতিত্বে সভার কার্যক্রম শুরু হয়। এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাড. ওয়াহেদুজ্জামান বুলা, খন্দকার আব্দুল জব্বার সোনা, মুজিবুল হক মালিক মজু, সদস্য শরিফুজ্জামান শরিফ, লে. কর্ণেল কামরুজ্জামান আজাদ, শহিদুল ইসলাম রতন, রফিকুল ইসলাম তনু, নিলিমা ইসলাম মিলি, সিরাজুল ইসলাম মনি, হাবিবুর রহমান হব,ি অ্যাড. শামীম রেজা ডালিম, মির্জা ফরিদুর ইসলাম শিপলু, আবু জাফর মন্টু, আনোয়ার হোসেন, আক্তারুজ্জামান, এম. জেনারেল ইসলাম, অ্যাড. শাহজাহান মুকুল ও আবু তালা শামসুজ্জামান।


সভায় সর্ব সম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়- চুয়াডাঙ্গা জেলার চারটি উপজেলা ও চারটি পৌরসভা কমিটির সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠনের লক্ষ্যে শিগগিরই স্ব স্ব উপজেলা ও পৌরসভা কমিটির বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হবে। এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক ও তিনজন যুগ্ম আহ্বায়ককে এক এক জনের নেতৃত্বে একটি করে টিম গঠন করে দেয়া হয়েছে। এ ছাড়া আগামী ৩০ মে বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা শহীদ জিয়াউর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন উপলক্ষে জেলায় একটি আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হবে। এ ছাড়াও সভা থেকে বিএনপি চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার অনতিবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করা হয়। সেই সাথে সারাদেশে আটক সকল বিএনপি নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবি জানানো হয়। এবং পবিত্র রমজান মাসে নিত্য প্রয়োজনীয় সকল দ্রব্যের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদ জানান বক্তারা।
সভাপতির বক্তব্যে ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক মাহমুদ হাসান খান বাবু বলেন, ‘আগামী দিনে দেশনেত্রীর মুক্তি, তারেক রহমানের দেশে প্রত্যাবর্তন এবং সকল নেতাকর্মীদের মুক্তির মাধ্যমে অবৈধ সরকারের স্বৈরাচারী সরকারের পতন অনিবার্য করবে। এজন্য সংগঠনকে তৃণমূল থেকে গণতান্ত্রিক পন্থায় সু-সংগঠিত করে আন্দোলন বেগবান করার বিকল্প নেই।’ তিনি সকল ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ ভাবে বিএনপিকে সুসংগঠিত করতে সকলের নৈতিক দায়িত্ববোধ জাগ্রত করার আহ্বান জানান।