শান্তিচুক্তির পরেও তালেবানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের হামলা

24

বিশ্ব প্রতিবেদন
তালেবান জঙ্গিদের ওপর আবারো বিমান হামলা চালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। উভয় পক্ষের মধ্যে হওয়া শান্তিচুক্তির পর এটিই তালেবানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম হামলা। এর আগে তালেবানরা জঙ্গি হামলা চালিয়ে হত্যা করে আফগানিস্তানের ২০ সেনা ও পুলিশ সদস্যকে। এরপরই তালেবানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের এ বিমান হামলার ঘটনা ঘটলো। যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে এ হামলা প্রতিরক্ষামূলক। এ খবর দিয়েছে আল-জাজিরা। বুধবার হামলার পর এ নিয়ে একটি টুইট বার্তা প্রকাশ করেন মার্কিন কর্নেল সনি লেজিট। এতে তিনি লেখেন, ৪ মার্চ আফগানিস্তানের নাহর-ই সারাজে তালেবান সদস্যদের লক্ষ্য করে বিমান হামলা চালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। তালেবানের ওই সদস্যরা আফগানিস্তানের সেনাদের লক্ষ্য করে হামলা চালাচ্ছিল। এটি গত ১১ দিনে তালেবানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম হামলা। তবে এতে হুমকিতে পড়েছে ১৯ বছর ধরে চলা আফগান যুদ্ধ বন্ধে করা শান্তিচুক্তি। দেড় বছর ধরে দর কষাকষির পর স্বাক্ষরিত চুক্তি অনুযায়ী, আফগানিস্তানে হামলা চালানো বন্ধ করবে তালেবান। অপরদিকে, জঙ্গি গোষ্ঠীটি হামলা বন্ধ করলে অবস্থা বিবেচনায় নিজেদের সেনা প্রত্যাহার করে নেবে যুক্তরাষ্ট্র। তবে ইকোনোমিকস টাইমস জানিয়েছে, বুধবারই তালেবান জঙ্গিরা নতুন করে হামলা চালিয়ে হত্যা করে ২০ সেনা ও পুলিশ সদস্যকে। আফগানিস্তানের কুন্দুজ প্রদেশের ইমাম শাহিব জেলায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। হতাহতের সংখ্যা নিশ্চিত করে বিবৃতি দিয়েছে স্থানীয় সরকারের প্রতিনিধি। এছাড়া, তালেবানরা এদিন আরো আক্রমণ করে উরুজগান প্রদেশের পুলিশকে। তবে এতে হতাহতের সংখ্যা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এতে এক সপ্তাহ না পেরুতেই হুমকিতে পড়েছে স্বাক্ষরিত আফগান শান্তি চুক্তি।