লাদাখে সেনা মোতায়েন চীনের, পিছিয়ে নেই ভারতও

77

বিশ্ব প্রতিবেদন:
লাদাখে উত্তেজনা কমাতে আলোচনা চলছে ভারত ও চীনের মধ্যে। এর মধ্যেই পূর্ব লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর ২০ হাজার সেনা মোতায়েন করল চীন। পাশাপাশি, জিনজিয়াং প্রদেশে কমপক্ষে ১০-১২ হাজার সেনার তৎপরতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এদের সঙ্গে রয়েছে ভারী অস্ত্র। উদ্বেগের বিষয় হল জিনজিয়াং থেকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে এলএসিতে পৌঁছে যেতে পারে লাল ফৌজ। এমনটাই জানিয়েছে সংবাদসংস্থা এএনআই।
ভারতীয় সরকার সূত্রে সংবাদসংস্থা এএনআইয়ের খবর, ‘পূর্ব লাদাখে লাল ফৌজের ২টি ডিভিশন মোতায়েন করেছে চীন। এদের সংখ্যা ২০ হাজারের কাছাকাছি। এছাড়া ১০ হাজার সেনার একটি ডিভিশনও জিনজিয়াং প্রদেশে রাখা হয়েছে। সেখান থেকে এলএসির দূরত্ব ১০০০ কিলোমিটার। ওই রাস্তা ৪৮ ঘণ্টায় পার করতে পারে চীনা সেনা। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার কাছাকাছি যে সেনা মোতায়েন করা হয়েছে তার ওপরে নজর রাখা হচ্ছে। ‘ উল্লেখ্য, গত ৬ সপ্তাহ ধরে এলএসিতে উত্তেজনা কমানোর জন্য কূটনৈতিক ও সামরিক স্তরে আলোচনা চালাচ্ছে ভারত। কিন্তু উত্তেজনা কমার কোনো লক্ষণ নেই। এলএসিতে সেনা ও সামরিক সরঞ্জাম কমাচ্ছে না চীন।
প্রসঙ্গত, তিব্বতে সবসময়ে চীনা সেনার ২ ডিভিশন মোতায়েন থাকে। সম্প্রতি আরো ২ ডিভিশন সেনা সেখানে আনা হয়েছে। চীনের ওই তৎপরতার কথা মাথায় রেখে ভারতও তার ঘর গোছাচ্ছে। অন্ততপক্ষে ২ ডিভিশন সেনা লাদাখে মোতায়েন করা হচ্ছে। এর সঙ্গে রয়েছে ভারতীয় সেনার মাউন্টেন ডিভিশন। ট্যাঙ্ক ও বিএমপি-২ ইনফ্যান্টারি কমব্যাট ভেহিকেলস আনা হয়েছে। মোতায়েন করা হচ্ছে আকাশ মিসাইল ও টি-৯০ ট্যাঙ্ক। জিনিউজ