র‌্যাবের মিডিয়া উইং প্রধান মুফতি মাহমুদ খানের প্রেস ব্রিফিং : ঝিনাইদহ জঙ্গি আস্তানায় অভিযান শেষ : ২ জঙ্গি আটক

644

ঝিনাইদহ অফিস: ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ধানহাড়িয়া চুয়াডাঙ্গা গ্রামে দ্বিতীয় দিন অভিযান শেষে করেছে র‌্যাব। বুধবার দুপুরে ২ বাড়ির জঙ্গি আস্তানায় অভিযান শেষ ঘোষনা করে বেলা ১২ টার দিকে ঝিনাইদহ র‌্যাব ক্যাম্পে প্রেস ব্রিফিং করেন র‌্যাবের মিডিয়া উইং প্রধান মুফতি মাহমুদ খান। বুধবার সকাল পৌনে ৯টা থেকে ২য় দিনের মত র‌্যাব এ অভিযান শুরু করে জঙ্গী আস্তানা থেকে উদ্ধার ২টি সুইসাইডাল ভেস্ট ও ১টি এন্টি মাইনের বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। এর পরপরই অভিযান শেষ করা হলো বলে মৌখিকভাবে ঘটনাস্থল থেকে জানানো হয়। মুফতি মাহমুদ খান জানান, সোমবার রাতে বিশেষ অভিযানে সেলিম ও প্রান্ত নামে দুজনকে আটক করে র‌্যাব। পরে তারা তথ্য দেয় কয়েকজন জঙ্গি বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরকসহ চুয়াডাঙ্গা গ্রামে আত্মগোপন করে আছে। এমন খবরের ভিত্তিতে মঙ্গলবার গভীর রাতে ওই এলাকায় অভিযানে যায় তারা। এসময় ঝিনাইদহের মহেশপুরে জঙ্গি আস্তানার অভিযানে নিহত তুহিনের ভাই সেলিম এবং চাচাতো ভাই প্রান্তের দুটি বাড়ি ঘিরে রাখা হয়। মঙ্গলবার সকালে খুলনা থেকে বোম ডিসপোজাল ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর পর অভিযান শুরু করে। অভিযানের শুরুতেই একটি বাড়ির বাঁশ বাগানে মাটির নিচ থেকে ২টি সুইসাইডাল ভেস্ট ও পিভিসি সার্কিট বোর্ড ১’শ ৮৬ টি, নিওজেল ১৮টি, এন্টি মাইন ১ ও বোমা তৈরীর রাসায়নিক কেমিকেল ৪ ড্রাম উদ্ধার হয়। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আলো স্বল্পতার কারণে ওই দিনের মত অভিযান স্থগিত করা হয়। বুধবার সকাল পৌনে ৯ টার দিকে ঢাকা থেকে আসা র‌্যাবের বোম্ব ডিস্পোজাল ইউনিট, কমান্ডো বাহিনী আবারো অভিযান শুরু করে এবং বেলা ১২ টার দিকে ঝিনাইদহ র‌্যাব ক্যাম্পে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিক ভাবে এ অভিযানের সমাপ্তি ঘোষনা করেন মুফতি মাহমুদ খান। অভিযান ও সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাবের পরিচালক অপারেশন লে.কর্নেল মাহমুদ, র‌্যাব ৬ এর কমান্ডিং অফিসার এডিশনাল ডিআইজি খন্দকার রফিকুল ইসলাম, ঝিনাইদহ র‌্যাবের অধিনায়ক মেজর মনির আহমেদসহ র‌্যাব কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য গত ৭ মে মহেশপুর উপজেলার বজরাপুর, সদর উপজেলার লেবুতলা ও ২১ এপ্রিল ঝিনাইদহ সদর উপজেলার পোড়াহাটি গ্রামের ঠনঠনিপাড়ার ‘জঙ্গি’ আব্দুল্লাহ ওরফে প্রভাত ওরফে বেড়ের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। এর মধ্যে বজরাপুর ও লেবুতলায় পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটি ও মঙ্গলবার র‌্যাব অভিযান পরিচালনা করে। সর্বশেষ চতুর্থ জঙ্গী আস্তানা হিসেবে ধানহাড়িয়া চুয়াডাঙ্গা গ্রামের আত্তাপের ছেলে সেলিম ও তার চাচাতো ভাই মতিউর রহমানের ছেলে প্রান্তর বাড়িতে অভিযান চালানো হয়।