রাষ্ট্রদ্রোহ : তারেককে গ্রেপ্তারে ফের পরোয়ানা

489

22372_1194972405675_1569404791_30518535_4872738_nসমীকরণ ডেস্ক: রাষ্ট্রদ্রোহের একটি মামলায় তারেক রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে ঢাকার একটি আদালত। ২০১৫ সালের তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানায় দায়ের করা এই মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করে বৃহস্পতিবার এই পরোয়ানা জারি করেন মহানগর হাকিম সরাফুজ্জামান আনসারী। বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক সাত বছর ধরে যুক্তরাজ্যে রয়েছেন। তার ফেরার কোনো ইঙ্গিত এখনো মেলেনি। এই মামলার অন?্য আসামি একুশে টিভির প্রতিবেদক মাহাথীর ফারুকী খানের বিরুদ্ধেও পরোয়ানা জারি করা হয়েছে বলে পুলিশের অপরাধ, তথ্য ও প্রসিকিউশন বিভাগের উপ কমিশনার মোহাম্মদ আনিসুর রহমান জানিয়েছেন। গত বছরের ৫ জানুয়ারি লন্ডন থেকে তারেক রহমানের দেয়া বক্তব্য একুশে টিভি সরাসরি সম্প্রচারের পর ৮ জানুয়ারি এই মামলাটি হয়। তারেক রহমান, একুশের টিভির তৎকালীন চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম এবং সাংবাদিক কনক সারোয়ার ও মাহাথীর ফারুকীর বিরুদ্ধে মামলাটি করেন তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার এসআই বোরহান উদ্দিন। আসামিদের মধ্যে সালাম বর্তমানে কারাগারে, কনক উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন আনিসুর। গত ৬ সেপ্টেম্বর এই মামলার অভিযোগপত্র আদালতে জমা পড়ার পর বৃহস্পতিবার তা হাকিমের কাছে উপস্থাপন করা হয়। মামলার এজাহারে বলা হয়, ‘আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য প্রচার করে দেশের সার্বভৌমত্বের প্রতি হুমকি প্রদর্শন, আইনের দ্বারা প্রতিষ্ঠিত সরকারের প্রতি ঘৃণা তৈরি করতে চেয়েছিলেন।’ ওই অনুষ্ঠানে জাতির জনকসহ বাংলাদেশের ইতিহাস নিয়ে বিতর্কিত বক্তব?্য দেন তারেক। পরে তার বক্তব?্য-বিবৃতি প্রচার ও প্রকাশে আদালতের নিষেধাজ্ঞা আসে। একুশে আগস্টের গ্রেনেড হামলাসহ আরও কয়েকটি মামলায় তারেকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা রয়েছে। মুদ্রা পাচারের একটি মামলায় তার অনুপস্থিতিতে সাত বছর কারাদ-ের রায়ও উচ্চ আদালত থেকে এসেছে।