যুক্তরাষ্ট্রের হয়ে খেলতে চান ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপজয়ী প্লাংকেট

32

খেলাধুলা ডেস্ক:
যুক্তরাষ্ট্রের হয়ে ক্রিকেট খেলার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন বিশ্বকাপজয়ী ইংল্যান্ড দলের ডান-হাতি পেসার লিয়াম প্লাংকেট। প্লাংকেটের স্ত্রী আমেরিকান। তাই ক্রিকেটকে বিদায়ের পর যুক্তরাষ্ট্রেই স্থায়ী হবার পরিকল্পনা তার। তবে ক্রিকেটকে বিদায় বলার আগে যুক্তরাষ্ট্রের হয়ে খেলতে চান প্লাংকেট। দেশের মাটিতে গত বিশ্বকাপে শিরোপা জয় করে ইংল্যান্ড। সেই দলের সদস্য ছিলেন প্লাংকেট। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে শ্বাসরুদ্ধকর ফাইনালে ১০ ওভারে ৪২ রানে ৩ উইকেট নেন তিনি। বিশ্বকাপের ফাইনালের পর দেশের হয়ে আর খেলার সুযোগ পাননি ৩৫ বছর বয়সী প্লাংকেট। এমনকি করোনাভাইরাস পরবর্তীতে ক্রিকেটের জন্য অনুশীলনের জন্য ৫৫ জনের যে তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে, সেখানেও নেই প্লাংকেটের নাম। ইতোমধ্যে কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকেও বাদ পড়েছেন তিনি। এমন অবস্থায় ইংল্যান্ডের হয়ে নিজের ক্যারিয়ারের ইতি দেখছেন কাউন্টিতে সারের হয়ে খেলা প্লাংকেট। তাই ভবিষ্যতে যুক্তরাষ্ট্রের হয়ে খেলার স্বপ্ন দেখছেন এই পেসারের।
এক সাক্ষাৎকারে প্লাংকেট বলেন, ‘যদি যুক্তরাষ্ট্রে খেলার সুযোগ পাওয়া যায়, তবে বিষয়টা দারুণ হবে। আমার বাচ্চারা আমেরিকান হবে। তাদের সাথে সেখানে থেকে খেলতে পারাটা দারুন হবে। ইংল্যান্ডের পর যুক্তরাষ্ট্রের ক্রিকেট খেলতে পারা হবে দারুণ সম্মানের।’ ২০১৯ সালে ওয়ানডে স্ট্যাটাস পেয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে যুক্তরাষ্ট্রের হয়ে খেলার জন্য যোগ্যতা অর্জন করতে হবে প্লাংকেটকে। অন্তত তিন বছর যুক্তরাষ্ট্রে থাকতে হবে তাকে। এরপর খেলার সুযোগ পাবেন তিনি। অবশ্য এই শর্তে কোন আপত্তি নেই প্লাংকেটের। তিনি বলেন, ‘আমি ইংল্যান্ডের নাগরিক, সব সময় ইংলিশম্যান থাকব। আমি এখনও ফিট আছি। সর্বোচ্চ পর্যায়ে ক্রিকেট খেলার জন্য এখনও প্রস্তুত আমি। তাহলে কেন আমি তা গ্রহণ করব না?’ যুক্তরাষ্ট্রের গ্রিন র্কার্ড পেলে ভালো লাগবে বলে জানান প্লাংকেট, ‘যদি যুক্তরাষ্ট্রে খেলার সুযোগ থাকে, অবশ্যই আমি সেটা কাজে লাগাব। সেখানে গিয়ে নাগরিক হওয়া বা গ্রিন কার্ড পাওয়া গেলে, আমি তাদের দেশের ক্রিকেট উন্নয়নেও আসতে পারি। বিশেষ করে ইংল্যান্ডের হয়ে ক্যারিয়ার শেষ করে সেখানে শুরু করতে পারলে আমার জন্য ভিন্ন আমেজের হবে। সেখানে ক্রিকেটের সঙ্গে জড়িত হতে পারলে ভালো লাগবে।’ ইতোমধ্যে বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবরও হয়েছে যে, ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক ব্যাটসম্যান জেভিয়ার মার্শাল, হ্যাম্পশায়ারের অলরাউন্ডার ইয়ান হল্যান্ড এবং দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার রাস্টি থেরনকে দলে নিতে পারে যুক্তরাষ্ট্র। ইংল্যান্ডের জার্সিতে ১৩ টেস্টে ৪১ উইকেট, ৮৯টি ওয়ানডেতে ১৩৫ উইকেট এবং ২২টি টি-২০তে ২৫ উইকেট নিয়েছেন প্লাংকেট।