যথাযোগ্য মর্যাদায় বিশ্বকর্মা পূজা উদ্যাপন

16

যাঁরা শিল্পকর্মে পারদর্শি, তাঁরাই বিশ্বকর্মার অনুগ্রহ কামনা করেন
নিজস্ব প্রতিবেদক:
দেবশিল্পী বিশ্বকর্মার আশিস কামনায় চুয়াডাঙ্গায় যথাযোগ্য মর্যাদায় শ্রী শ্রী বিশ্বকর্মা পূজা উদ্যাপিত হয়েছে। সনাতন ধর্মাবলম্বী জুয়েলার্স কারিগরদের আয়োজনে তিন দিনব্যাপী এ আয়োজনের সমাপ্তি হয় গতকাল শুক্রবার বিসর্জনের মধ্য দিয়ে। গত বুধবার সকালে পূজা-অর্চনা ও পুষ্পাঞ্জলির মধ্য দিয়ে চুয়াডাঙ্গা ফেরিঘাট রোডের শ্রী শ্রী সত্য নারায়ণ মন্দিরে এ পূজার আনুষ্ঠানিকতা শুরু করা হয়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মহিলা ও বাচ্চাদের শঙ্খ ও উলুধ্বনি প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। শঙ্খ প্রতিযোগিতায় যথাক্রমে ১ম, ২য় ও ৩য় হয়েছেন বাসন্তী কর্মকার, ঝর্ণা সিংহ ও সুকুমারী হালদার এবং উলুধ্বনি প্রতিযোগিতায় রুপা দেবনাথ, সুকুমারী হালদার ও সুবর্ণা পাত্র বিজয়ী হয়েছেন। প্রতিযোগিতা শেষে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। বিচারক হিসেবে ছিলেন দৈনিক সময়ের সমীকরণ-এর সহসম্পাদক হেমন্ত কুমার সিংহ রায় ও শ্রী শ্রী সত্য নারায়ণ মন্দিরের সেবায়েত পান্না লাল ত্রিবেদী।
আয়োজকেরা বলেন, বিশ্বকর্মা চতুর্ভুজ ও গজারূঢ়। তাঁর আকৃতি অনেকটা কার্তিকের মতো। পবিত্র বেদে বিশ্বকর্মাকে পৃথিবীর সৃষ্টিকর্তারূপে বর্ণনা করা হয়েছে। ভক্তদের বিশ্বাস মতে, তিনি বিশ্বের তাবৎ কর্মের সম্পাদক। তিনি শিল্পসমূহের প্রকাশক, অলঙ্কার শিল্পের ¯্রষ্টা ও দেবতাদের গমনাগমনের জন্য বিমান নির্মাতা। অর্থাৎ শিল্পবিদ্যায় তাঁর একচ্ছত্র অধিকার। তাই যাঁরা শিল্পকর্মে পারদর্শিতা লাভ করতে চান, তাঁরা বিশ্বকর্মার অনুগ্রহ কামনা করেন। রামায়ণে বর্ণিত অপূর্ব শোভা ও সম্পদবিশিষ্ট লঙ্কা নগরীর নির্মাতা বিশ্বকর্মা বলে কথিত। তিনি উপবেদ, স্থাপত্যবেদ ও চতুঃষষ্টিকলারও প্রকাশক। দেবশিল্পিরূপে তিনি দেবপুরী, দেবাস্ত্র ইত্যাদিরও নির্মাতা। জনশ্রুতি আছে যে, পুরীর প্রসিদ্ধ জগন্নাথমূর্তিও বিশ্বকর্মা নির্মাণ করেন। ভাদ্র মাসের সংক্রান্তি দিনে এ পূজা উদ্যাপন করা হয়ে থাকে।
চুয়াডাঙ্গায় শ্রী শ্রী সত্য নারায়ণ মন্দিরে বিশ্বকর্মা পূজার আয়োজক কমিটিতে আছেন সভাপতি নির্মল হালদার, সহসভাপতি উত্তম অধিকারী, সুভাষ কর্মকার, সাধারণ সম্পাদক প্রশান্ত সিংহ, সহসাধারণ সম্পাদক জয়ন্ত পাত্র, বিষ্ণু হালদার, কোষাধ্যক্ষ চন্দন দেবনাথ, সাংগঠনিক সম্পাদক পরিমল সিংহ, প্রচার সম্পাদক সাগর সেন, সদস্য ধিরেন কর্মকার, প্রকাশ কর্মকার, হৃদয় হালদার, বরুন দাস, দুলাল সান্তারা, প্রকাশ দেবনাথ, বাসু সাহা ও আকাশ হালদার।