মোবারকগঞ্জ রেলস্টেশনে অল্পের জন্য রক্ষা পেল ট্রেনের যাত্রীরা

205

ঝিনাইদহ অফিস: ঝিনাইদহের কালীগঞ্জের মোবারকগঞ্জ রেলস্টেশনে অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেয়েছে ট্রেনের একাধিক যাত্রী। ট্রেন পরিচালকের গাফিলতির কারনে তড়িঘড়ি করে নামতে যেয়ে একাধিক যাত্রী আহত হয়। এদের মধ্যে দু’জন যাত্রী ট্রেন থেকে নীচে পড়ে গেলেও অল্পের জন্য টুকরো টুকরো হওয়ার হাত থেকে বেঁচে যায়। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার সন্ধায় মোবারকগঞ্জ রেলষ্টেশনে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার সকালে হাসানুর রহমান নামে এক ট্রেন যাত্রী লিখিত অভিযোগ করেন। তার বাড়ি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার কুলফাডাঙ্গা গ্রামে। লিখিত অভিযোগে জানানো হয়েছে, তিনি সহ আরো ৬ জন রাজশাহী থেকে কপোতাক্ষ এক্সপ্রেস ডাউন-৭১৬ ট্রেনে উঠেন। ট্রেনটি মোবারকগঞ্জ রেলস্টেশনে ৫.২০ মিনিটে পৌছায়। ট্রেনটি দুই মিনিট থামার কথা। কিন্তু মাত্র ৫০ সেকেন্ডের মাথায় যাত্রীরা উঠা-নামার আগেই ট্রেনে থাকা গার্ডের সংকেত পেয়ে আবার যাত্রা শুরু করে। এসময় ট্রেনের যাত্রীরা তাড়াহুড়া করে নামতে যেয়ে প্লাটফর্মে পড়ে বেশ কয়েকজন আহত হয়। এছাড়া দুই যাত্রী প্লাটফর্ম থেকে পা পিছলে ট্রেনের নীচে পড়ে যাওয়ার উপক্রম হয়। এসময় উপস্থিত যাত্রীদের চিৎকারে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পরে গাড়ির যাত্রীরা চেইন টেনে ট্রেনটি আবার থামায়। এসময় বিক্ষুদ্ধ যাত্রীরা ট্রেনকর্মীদের উপর চড়াও হয়। এসময় তারা ট্রেনের পরিচালকের বিচার দাবি করে। পরে সেখানে উপস্থিত স্থানীয়দের মধ্যস্থতায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আসে। বিষয়টি নিয়ে মোবারকগঞ্জ রেল স্টেশনের মাস্টার নজরুল ইসলাম জানান, ভুল বোঝাবুঝির কারনে একটু ঝামেলা হয়েছিল। পরে যাত্রীরা চেইন টেনে ট্রেনটি আবার ৫ মিনিট থামিয়ে যাত্রীরা উঠা-নামা করে।