মেহেরপুরে শিশু ধর্ষণের ঘটনায় মামলা : ধর্ষক পলাতক

135

মেহেরপুর অফিস: মেহেরপুর শহরের হঠাৎপাড়া-তাঁতিপাড়ায় এক কন্যা শিশুকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ধর্ষকের বিচার দাবিতে এলাকাবাসী ফুঁসে উঠেছে। শিশুটির বাবা মেহেরপুর সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। পুলিশ আসামিকে গ্রেফতার করতে পারেনি।
জানা যায়, মেহেরপুর শহরের হঠাৎপাড়া-তাঁতিপাড়ার কলিমউদ্দিনের কন্যা (১০) স্থানীয় তাঁতিপাড়া দাখিল মাদ্রাসার ৩য় শ্রেণির ছাত্রী। সে প্রতিরাতে তার বড় চাচা জাহাঙ্গীরের বাড়িতে ঘুমায়। প্রতিদিনের ন্যায় গত সোমবার রাত ১০টার দিকে বড় চাচার বাড়িতে ঘুমানোর জন্য বের হয়। পথে একই পাড়ার কাশেদ আলীর ছেলে দাউদ তার মুখ চেপে ধরে জোর পূর্বক তার বাড়িতে তুলে নিয়ে যায় এবং রাতভর তাকে অস্ত্রের মুখে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। রাতে চাচার বাড়িতে না যাওয়ায় রাতভর তাকে খোঁজাখুঁজি করা হয়। সকালে ধর্ষিতা বাড়ি ফিরে অভিভাবকদের বিষয়টি জানিয়ে দেয়। এ ঘটনা জানাজানি হলে তাৎক্ষণিকভাবে এলাকাবাসী ফুঁসে ওঠে এবং ধর্ষক দাউদ হোসেনকে গ্রেফতারের দাবিতে এলাকাবাসী বিক্ষোভ করে। এদিনই রাত ৮টার দিকে এলাকাবাসী মেহেরপুর পৌরসভার মেয়র মাহফুজুর রহমান রিটনের নিকট যান এবং ধর্ষক দাউদ হোসেনের গ্রেফতার ও উপযুক্ত শাস্তি দাবি করেন। পৌর মেয়র পৌরসভার কালাচাঁদ মেমোরিয়াল হলে তাদের সাথে মতবিনিময় ও তাদের আশ্বস্ত করেন।
এদিকে, গতকাল মঙ্গলবার রাতে ধর্ষিতার পিতা বাদি হয়ে দাউদ হোসেনকে আসামি করে মেহেরপুর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। তবে পুলিশ বলেছে পালিয়ে যাওয়ায় আসামিকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।