ভূমি কর্মকর্তা হাফিজুরের মর্মান্তিক মৃত্যু!

60

চুয়াডাঙ্গা থেকে স্ত্রীকে নিয়ে কুষ্টিয়ায় যাওয়ার পথে সড়ক দুর্ঘটনা
নিজস্ব প্রতিবেদক:
কুষ্টিয়ার পাটিকাবাড়ী এলাকায় অবৈধ যান আলমসাধু ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখী সংঘর্ষে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের উপ-সহকারী ভূমি কর্মকর্তার মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শুক্রবার দুপুর ১টার দিকে কুষ্টিয়া জেলার ইবি থানাধীন পাটিকাবাড়ীতে এ দুর্ঘটনা ঘটে। পরে খবর পেয়ে কুষ্টিয়ার ইবি থানা-পুলিশ কর্তৃপক্ষ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। নিহত হাফিজুর রহমার (৪২), চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার সবুজপাড়ার আব্দুল হামিদের ছেলে। সে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের উপ-সহকারী ভূমি কর্মকর্তা (রাজস্ব) হিসেবে কর্মরত ছিলেন। গতকাল রাতেই চুয়াডাঙ্গায় হাফিজুরের দাফনকার্য সম্পন্ন করা হয়। জানা যায়, হাফিজুরের স্ত্রী এলিজা আক্তার মনির আজ শনিবার কুষ্টিয়ায় একটি ট্রেনিংয়ে অংশ নেওয়ার কথা ছিল। সেইজন্য একদিন আগেই (গতকাল শুক্রবার) হাফিজুর ইসলাম স্ত্রীকে নিয়ে মোটরসাইকেলযোগে কুষ্টিয়ার উদ্দেশে রওনা হয়। পথিমধ্যে কুষ্টিয়া জেলার পাটিকাবাড়ী নামক স্থানে পৌঁছালে সামনে থেকে আসা একটি অবৈধ যান আলমসাধুর সঙ্গে হাফিজুরের মোটরসাইকেলের মুখোমুখী সংঘর্ষ হয়।

এতে ঘটনাস্থলেই হাফিজুর মারা যান এবং তাঁর স্ত্রী এলিজা আক্তার মনি গুরুত্বর জখম হন। স্থানীয়রা তাঁকে দ্রুত উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। এদিকে, নিহত হাফিজুর রহমানের লাশ ময়নাতদন্ত শেষে গতকাল রাত সাড়ে ৮টার দিকে লাশ চুয়াডাঙ্গার সবুজপাড়ায় এসে পৌঁছালে এলাকাজুড়ে শোকের ছায়া নেমে আসে। পরে রাত সাড়ে দশটায় সবুজপাড়া জামে মসজিদে জানাজার নামাজ শেষে চুয়াডাঙ্গার জান্নাতুল মাওলা কবরস্থানে হাফিজুরের দাফনকার্য সম্পন্ন করা হয়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত একই ঘটনায় গুরুত্বর জখম হওয়া এলিজা আক্তার কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছিলেন।