ভালো লেখনির মাধ্যমে সত্য ও প্রকৃত ইতিহাস তুলে আনতে হবে

31

‘আন্দুলবাড়ীয়ার ৪০০ বছরের ইতিহাস’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে এসপি জাহিদ
প্রতিবেদক, আন্দুলবাড়ীয়া:
‘এসো পৃথিবী দেখি সাহিত্যের আয়নায়’ এই স্লোগানে জীবননগর উপজেলার আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়নের ৪ শ বছরের ইতিহাস বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে। আন্দুলবাড়ীয়া সাহিত্য পরিষদের উদ্যোগে গতকাল শুক্রবার বিকেল চারটায় আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের হলরুমে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। আন্দুলবাড়ীয়া সাহিত্য পরিষদের সভাপতি ও আন্দুলবাড়ীয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি নারায়ণ ভৌমিকের সভাপতিত্বে চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম বলেন, ইতিহাস বিকৃত নয়, সত্য ও প্রকৃত ইতিহাস ভালো লেখনির মাধ্যমে তুলে আনতে হবে। ভালো লেখা কবি, সাহিত্যক ও সাংবাদিকদের উৎসাহিত করে। কবি, সাহিত্যকদের ভালো লেখনি সমাজ ও রাষ্ট্রের পরিবর্তন আনে। সত্য লেখনির মাধ্যমে প্রকৃত ইতিহাস তুলে ধরলে আগামী বা ভবিষ্যৎ প্রজন্ম সঠিক ইতিহাস জানতে পারবে।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন আন্দুলবাড়ীয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও আন্দুলবাড়ীয়া সাহিত্য পরিষদের দপ্তর সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম মামুন। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজি মো. হাফিজুর রহমান হাফিজ, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম ঈশা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েশা সুলতানা লাকী, জীবননগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম ও আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ শফিকুল ইসলাম মোক্তার। অনুষ্ঠানে সমাপণী বক্তব্য দেন আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়নের ৪ শ বছরের ইতিহাস বইয়ের লেখক সাংবাদিক নারায়ণ ভৌমিক।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন আন্দুলবাড়ীয়া সাহিত্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদিকা কবি আশরাফুন নাহার শোভা, আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সাখাওয়াত হোসেন, জীবননগর সাংবাদিক সমিতির সাবেক সভাপতি আতিয়ার রহমান, বর্তমান সভাপতি জি এ জাহিদুল ইসলাম বাবু, জীবননগর প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আকিমুল ইসলাম আকমান, দৈনিক সময়ের সমীকরণ পত্রিকার জীবননগর সহকারী ব্যুরো প্রধান ও মাইটিভির জীবননগর উপজেলা প্রতিনিধি মিঠুন মাহমুদ, মনোহরপুর প্রতিবেদক এ আর ডাবলু, জীবননগর থানার ওসি (অপারেশন) বিভাগের মোল্লা সেলিম উদ্দীন, শাহাপুর পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই সোলায়মান হোসেন, টুআইসি হাবিবুর রহমান হাবিব, জীবননগর উপজেলার সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ মুজিবুর রহমান ফণ্টু, আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ মহিদুল ইসলাম মধু জিহাদী, আন্দুলবাড়ীয়া বাজারের ধর্ণাঢ্য ব্যবসায়ী আব্দুল লতিফ বিশ্বাস, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও জীবননগর উপজেলা পূজা উদ্যাপন কমিটির সভাপতি বিজয় হালদার, সাংবাদিক পুত্র আবু সাঈদ, মহেন্দ্র লাল ভৌমিক অন্তর, নীলাঞ্জনা ভৌমিক নীলা প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মুন্সী আবু সাঈফ মুকু।
অনুষ্ঠান শেষে প্রস্তাবিত আন্দুলবাড়ীয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের নির্ধারিত জায়গা পরিদর্শন করেন পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম। পরিদর্শন শেষে তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ব্যাপারে সর্বাত্মক সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন।