ব্যবহারকারীর আলাপচারিতা ‘শুনেছে’ ফেসবুক

61

প্রযুক্তি ডেস্ক:
সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ব্যবহারকারীদের আলাপচারিতা শুনেছে। সেই কথোপকথন ভাষান্তরের জন্য শত শত চুক্তিভিক্তিক কর্মীকে নিয়োগ দেয় এই প্রযুক্তি জায়ান্ট। ব্যবহারকারীদের এই আলাপচারিতা সংগ্রহের কথা স্বীকার করে ফেসবুক বলেছে, তারা সম্প্রতি এই কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে। এর আগে ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহের অভিযোগ ওঠে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। ওই অভিযোগের বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে তদন্তের জোরালো দাবিও ওঠে বিভিন্ন পক্ষ থেকে। এর মধ্যে গত মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী সংবাদপত্র ব্লুমবার্গ–এর একটি প্রতিবেদনে ফেসবুকের বিরুদ্ধে নতুন এ অভিযোগ এল।ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফেসবুকের ভয়েস চ্যাট অ্যাপ ব্যবহারকারীদের আলাপচারিতা সংগ্রহ এবং সেগুলো ভাষান্তরের জন্য বেশ কিছু লোককে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেওয়া হয়। নিয়োগ নিশ্চিত করার আগে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহারের সক্ষমতা যাচাইয়ের জন্য তাঁদের পরীক্ষা নেওয়া হয়। যাঁরা ফেসবুক মেসেঞ্জারের ভয়েস চ্যাট সাবস্ক্রাইব (ভয়েসকে টেক্সে রূপান্তরের অ্যাপ) ব্যবহার করে যোগাযোগ করেছিলেন, শুধু তাঁরাই আক্রান্ত হয়েছেন। তাঁদের দিয়ে কেন এই কাজ করানো হচ্ছে এবং এর পেছনে উদ্দেশ্যই–বা কী, তা ওই কর্মীদেরও জানানো হয়নি।