বিএনপি নয়, মহাসংকটে পড়েছে বর্তমান সরকার

69

খুলনা বিভাগীয় সমাবেশ সফলের লক্ষ্যে প্রস্তুতি সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী

প্রয়াত তরিকুল ইসলামসহ আন্দোলন সংগ্রামে নিহতদের আত্মার মাগফিরাত কামনা
নিজস্ব প্রতিবেদক:
বিএনপি নয়, বর্তমান সরকার মহাসংকটে পড়েছে। আর এই সরকার দেশ ও জনগণকেও সংকটের মধ্যে ফেলে দিয়েছে। আজ একটি লুটেরা ডাকাত দল দেশের অর্থ, সম্পদ, মানুষের ভোটাধিকার সবকিছু লুন্ঠন করেছে। দেশের ব্যাংক, বীমা আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো লুন্ঠন করা হচ্ছে। দেশের আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও ব্যবসা বাণিজ্য সবকিছু একটি গোষ্ঠী কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে।
গতকাল শনিবার দুপুরে খুলনা নগরীর হোটেল এ্যাম্বাসেডরে অনুষ্ঠিত দলের বিভাগীয় প্রস্তুতি সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. নিতাই রায় চৌধুরী এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, গত নির্বাচনের মধ্য দিয়ে দেশের শাসন ফ্যাসিবাদী শাসনে পরিণত হয়েছে। এই ফ্যাসিস্ট সরকারকে জনগণ আর দেখতে চায় না, জনগণ এর পরিবর্তন চায়। এই সংকট থেকে মানুষ মুক্তি চায়। সংকটাপন্ন দেশকে বাঁচাতে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বের কোনো বিকল্প নেই। এ দেশের গণতন্ত্রকামী জনগণ তাদের প্রিয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এবং তাঁর পরিবারকে বিশ্বাস করে। এ জন্য সরকার উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে বন্দী রেখেছে। ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলনের মাধ্যমে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা হবে। এ ছাড়া প্রধান অতিথি খুলনার সমাবেশ মহাসমাবেশে রূপ নেবে তাঁর বক্তব্যে উল্লেখ করেন।

গতকাল শনিবার খুলনায় অনুষ্ঠিত বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশের প্রস্তুতি সভায় কেন্দ্রীয় নেতারা সমাবেশের মাধ্যমে তৃণমূলে দলকে সাংগঠনিকভাবে শক্তিশালী করার আহ্বান জানান। এতে সভাপতিত্ব করেন কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও খুলনা মহানগর সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু।
সভা থেকে অবিলম্বে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়। একই সাথে খুলনা বিভাগের অবিসংবাদিত নেতা সাবেক মন্ত্রী ও দলের জাতীয় স্থায়ী কমিটির প্রয়াত সদস্য তরিকুল ইসলাম এবং কারাগারে আটক অবস্থায় কুষ্টিয়ার বিএনপি নেতা এম এ শামীম আরজুসহ আন্দোলন সংগ্রামে নিহতদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করা হয়।
সভায় উপস্থিত ছিলেন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য মশিউর রহমান ও সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমি, বিএনপির প্রকাশনা সম্পাদক হাবিবুল ইসলাম হাবিব, স্থানীয় সরকার বিষয়ক সম্পাদক অধ্য সোহরাব উদ্দিন, সাবেক ছাত্রনেতা রফিকুল ইসলাম বকুল, সহসাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত, জয়ন্ত কুমার কুন্ডু, সাবেক দপ্তর সম্পাদক মফিকুল হাসান তৃপ্তি, খুলনা জেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাড. শফিকুল ইসলাম মনা, মেহেরপুর জেলার সভাপতি মাসুদ অরুন, ঝিনাইদহ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল মালেক, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চুয়াডাঙ্গা-১ আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মো. শরীফুজ্জামান শরীফ, মেহেরপুর-২ আসনের বিএনপি মনোনীত প্রার্থী জাভেদ মাসুদ মিল্টন প্রমুখ। এ ছাড়াও সভায় বিএনপির কেন্দ্রীয় ও বিভাগীয় নেতারা, বিভাগের ১০ জেলার বিএনপির সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক ও অঙ্গ সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, আগামী ২৫ জুলাই খুলনায় বিভাগীয় সমাবেশ সফল করার লক্ষ্যে ওয়ার্ড, ইউনিয়ন ও থানা পর্যায়ে ব্যাপকভাবে গণসংযোগ, কর্মী সভা ও প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।