পয়েন্ট ভাগাভাগি হতে পারে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের

33

খেলাধুলা প্রতিবেদন:
বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় ইতোমধ্যেই বাতিল হয়েছে আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অধিনে বেশ কিছু সিরিজ। মার্চ মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে জুন মাস পর্যন্ত বন্ধ ছিল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। জুলাই মাসে ইংল্যান্ডে স্বাস্থ্য বিধি মেনে আবারও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরেছে বাইশ গজে। এদিকে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ সময়ে শেষ করার জন্য বাতিল হওয়া বা স্থগিত হওয়া সিরিজগুলোর পয়েন্ট অংশগ্রহণকারী দুই দলের মধ্যে ভাগ করে দিতে পারে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের নিয়ম অনুযায়ী দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ ড্র হলে দুই দলই ২০ পয়েন্ট করে পাবে। আর তিন ম্যাচের সিরিজের ক্ষেত্রে ড্র হলে প্রতি দল ১৩ পয়েন্ট করে পাবে। কোভিডকালে যে সমস্ত টেস্ট সিরিজ গুলো স্থগিত হয়েছে সেগুলো দেখে নেওয়া যাক- শ্রীলঙ্কা বনাম ইংল্যান্ড-২ টি টেস্ট, পাকিস্তান বনাম বাংলাদেশ-একটি টেস্ট, বাংলাদেশ বনাম অস্ট্রেলিয়া-২টি টেস্ট, শ্রীলঙ্কা বনাম বাংলাদেশ-৩টি টেস্ট, ওয়েস্ট ইন্ডিজ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা-২টি টেস্ট, বাংলাদেশ বনাম নিউ জিল্যান্ড-২টি টেস্ট। এখন স্থগিত হওয়া টেস্ট সিরিজগুলির জন্য নতুন সূচি তৈরি করতে হবে। তাহলে কিন্তু সময়মতো ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শেষ করা মুশকিল। কেননা সূচি অনুযায়ী, ২০২১ সালে জুন মাসে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। তবে পয়েন্ট ভাগাভাগির বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে আইসিসি’র ক্রিকেট কমিটি।