প্রিমিয়ার লিগের মতো চ্যাম্পিয়নশিপ লিগও বাতিল হচ্ছে!

49

খেলাধুলা ডেস্ক:
পরিত্যক্ত হয়েছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ। সেই সঙ্গে পরিত্যক্ত ২০১৯-২০ মৌসুম। তাহলে পেশাদার ফুটবল লিগের দ্বিতীয় স্তর বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের কি হবে? ১৩ দলের এ লিগের দলবদল শুরু হয়েছে। অগ্রণী ব্যাংক স্পোর্টস ক্লাব খেলোয়াড় রেজিস্ট্রেশনও করেছে। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে দলবদলের সময়সীমা দুইবার বাড়িয়ে নির্ধারণ করা হয়েছিল ১০ জুন পর্যন্ত। প্রিমিয়ার লিগ পরিত্যক্ত হওয়ায় কোনো দলের রেলিগেশন হচ্ছে না। তাহলে চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ হলে সেখান থেকে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দলের ভাগ্যে কি হবে? তাছাড়া ১০ জুন দলবদল শেষ হলে কবে বিসিএল শুরু হবে, কবে তারা চ্যাম্পিয়ন-রানার্সআপ দল প্রিমিয়ারে নাম লেখাবে। বিসিএল শেষ হওয়ার আগেই হয়তো শুরু হয়ে যাবে প্রিমিয়ার লিগের দলবদল। এসব জটিলতা এড়াতে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের মতো বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগটাও বাতিলের খাতায় ফেলছে বাফুফে। আজ সকাল সাড়ে ১১ টায় বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের ১৩ ক্লাবের কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভার্চুয়াল সভা করবে বাফুফের প্রফেশলান ফুটবল লিগ কমিটি। এ সভায়ই ইতি টানা হতে পারে দলবদলের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া বিসিএল এর কার্যক্রম। ২০ মার্চ শুরু হয়েছিল বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের দলবদলের কার্যক্রম। প্রথমে শেষ হওয়ার কথা ছিল ৩০ এপ্রিল। পরে বাফুফে সেটা বাড়িয়ে ১০ জুন পর্যন্ত করেছিল। ফর্টিস স্পোর্টস একাডেমি লিমিটেড এবং উত্তরা ফুটবল ক্লাব নামের আরো দুটি দলের এবার অভিষেক হওয়ার কথা ছিল পেশাদার ফুটবলে। নতুন দুটিসহ ৫ দল বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের (বিসিএল) খেলার জন্য আবেদন করেছিল। বাফুফে সবগুলোকেই খেলার জন্য বিবেচনায় এনেছে। নোফেল স্পোর্টিং ক্লাব, ফরাশগঞ্জ স্পোর্টিং ক্লাব, টিঅ্যান্ডটি ক্লাব, ভিক্টোরিয়া স্পোটিং ক্লাব, অগ্রণী ব্যাংক স্পোর্টস ক্লাব, ফকিরেরপুল ইয়ংমেন্স ক্লাব, ঢাকা সিটি ফুটবল ক্লাব, ওয়ারি ক্লাব, কারওয়ান বাজার প্রগতি সংঘ, ঢাকা ওয়ান্ডারার্স ক্লাব, স্বাধীনতা ক্রীড়া সংঘ, ফর্টিস স্পোর্টস একাডেমি ও উত্তরা ফুটবল ক্লাব।