প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগের ঘোষণায় ইরাকে রাতভর উল্লাস, তবে…

11

বিশ্ব ডেস্ক
প্রধানমন্ত্রী আদেল আবদুল মাহদি পদত্যাগ করার ঘোষণা দেয়ার পর থেকেই ইরাকজুড়ে উল্লাস দেখা দিয়েছে। তবে দেশটির দক্ষিণাঞ্চলে শুক্রবার রাতেও সহিংসতা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ করেন নি। তিনি পদত্যাগ করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। তার এ ঘোষণা দেয়ার পর রাজধানী বাগদাদে প্রতিবাদী জনতা উল্লাসে ফেটে পড়ে শুক্রবার রাতে। তাহরির স্কয়ারে উচ্চ নিনাদে বাজানো হয় গান। নেচে গেয়ে তারা উল্লাস প্রকাশ করতে থাকেন। তবে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন পুরো রাজনৈতিক শ্রেণিকে পদ থেকে সরিয়ে না দেয়া পর্যন্ত তাদের বিক্ষোভ চলতেই থাকবে। ওদিকে দক্ষিণ ইরাকের নাসিরিয়া শহরে সহিংসতা চলছিলই। সেখানে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে ২১ জনকে। বিক্ষোভ চলাকালে রাজধানী বাগদাদের কেন্দ্রীয় এলাকায় নিহত হয়েছেন একজন প্রতিবাদী। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।
প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ করবেন এমন ঘোষণা দেয়ার পর তাহরির স্কয়ারে বিক্ষোভে অংশ নেয়া একজন চিৎকার করে বলছিলেন, এটা হলো আমাদের প্রথম বিজয়। আমরা আশা করছি আরো এমন ঘটনা ঘটবে। ওদিকে হতাহতদের তাহরির স্কয়ার থেকে সরিয়ে নেয়া হচ্ছিল ইঞ্জিনচালিত রিক্সায়। এ সময় তা থেকে দেশাত্মবোধক গানে চারদিকে এক অন্য রকম পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। পাশেই একটি ১৮ তলা ভবন দখলে নিয়েছেন বিক্ষোভকারীরা। এই ভবনটি বিক্ষোভের প্রতীক হয়ে উঠেছে। তার ওপর বিক্ষোভকারীরা উঠে নাচছিলেন। বাতাসে ছড়িয়ে দিচ্ছিলেন বজ্রমুষ্ঠি। অনেকেই বলছিলেন প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ যথেষ্ট নয়। তার প্রশাসনের সব কর্মকর্তাকে দুর্নীতিবাজ আখ্যায়িত করেন বিক্ষোভকারীরা। তাদের বক্তব্য এই প্রশাসনের একজন পদে থাকা পর্যন্ত আমরা তাহরির স্কয়ার ছেড়ে যাবো না। তাদের সবাইকে উপড়ে ফেলা হবে। একজনকেও পদে রাখা হবে না। ওদিকে বুধবার ইরানের কনস্যুলেটে আগুন ধরিয়ে দেয় বিক্ষোভকারীরা।