প্রকৃতিতে সৌন্দর্য বয়ে নিয়ে আসে ঋতুরাজ

52

চুয়াডাঙ্গা মহিলা কলেজে বনভোজ ও বসন্ত উৎসবে অধ্যক্ষ আজিজুর রহমান
নিজস্ব প্রতিবেদক:
জাকজমকপূর্ণ আয়োজনে চুয়াডাঙ্গা সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজে বার্ষিক বনভোজন ও বসন্ত উৎসব-২০২০ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার এ উপলক্ষে দিনব্যাপী কলেজ প্রাঙ্গনে নাচ, গান, আবৃত্তি, কৌতুকসহ নানা প্রকার সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়। আবির নিয়ে বাসন্তী রঙের শাড়িতে দেখা যায় কলেজের ছাত্রীদের। ছাত্রীদের সাথে সাথে শিকক্ষ-শিক্ষিকাদেরও দেখা যায় হরেক রকম সাজে। সবমিলিয়ে কলেজ প্রাঙ্গণ পরিণত হয় আনন্দের এক মিলনমেলায়। বনভোজন ও বসন্ত উৎসবের স্লোগান ছিলো, ‘এসেছি এখানে সবুজ ছায়ায়, মিলেছি সবাই মিলনমেলায়’। অনুষ্ঠানের শুরুতেই একটি সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় দর্শন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও বার্ষিক বনভোজন ও বসন্ত উৎসব কমিটির আহ্বায়ক সাজ্জাদ হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর আজিজুর রহমান। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, বাঙ্গালির হাজার বছরের ইতিহাসের সঙ্গে মিশে আছে বসন্ত উৎসব। ষড়ঋতুর দেশে বসন্ত ঋতুরাজ। আমাদের জীবনে এ ঋতুর একটি সুন্দর প্রভাব আছে। প্রকৃতিতে সৌন্দর্য আর আনন্দ বয়ে নিয়ে আসে ঋতুরাজ বসন্ত।
অনুষ্ঠানে সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজের সহকারি অধ্যাপক মাসুদ পারভেজ ও সুলতানা জান্নাতুর ফেরদৌসের প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজের উপাধ্যক্ষ রেজাউল করিম, শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মামুনুর রশিদ, সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ পত্নী হেলেনা পারভীন রানী, উপাধ্যক্ষ পত্নী রওশন আরা খানম, সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজের বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. আব্দুর রশিদ, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শাহজাহান আলী, অর্থনীতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সাবিনা ইয়াসমিন, রসায়ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান আসাবুল হক, ব্যবস্থাপনা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মাহমুদ কবিরসহ চুয়াডাঙ্গা সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজের বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, সহকারি অধ্যাপক ও প্রভাষকবৃন্দ।