প্যাথেডিনসহ দু’মাদকব্যবসায়ী ও মদ্যপ অবস্থায় চারজন আটক

239

চুয়াডাঙ্গা জেলা গোয়েন্দা পুলিশ ও সদর ফাঁড়ি পুলিশের পৃথক মাদক বিরোধী অভিযান

নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গা জেলা গোয়েন্দা পুলিশ ও সদর ফাঁড়ি পুলিশ পৃথক অভিযান চালিয়ে দু’মাদক ব্যবসায়ী ও মদ্যপ অবস্থায় চার মাতালকে আটক করেছে। গতকাল শনিবার চুয়াডাঙ্গা পুরাতন স্টেডিয়াম ও বড় মসজিদপাড়া থেকে ভিন্ন ভিন্ন সময়ে এদেরকে আটক করা হয়। এসময় আটককৃত মাদক ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ১০ এ্যাম্পুল প্যাথেডিন উদ্ধার করা হয়। পরে আটককৃত চার মাতালের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থাসহ  দু’মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে মামলা দিয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা হেফাজতে সোপর্দ করা হয়।
জানা যায়, গতকাল রাত সাড়ে ৮টার পর জেলা গোয়েন্দা পুলিশ বড় মসজিদপাড়ায় অভিযান চালিয়ে ওসমান গনি ওরফে রনি ও সুজনকে ১০ এ্যাম্পুল প্যাথেডিনসহ আটক করে। অপরদিকে রাত ৯টার সময় সদর ফাঁড়ি পুলিশ চুয়াডাঙ্গা রেলস্টেশনের পাশে পুরাতন স্টেডিয়াম এলাকা থেকে  মোমিনপুর ইউনিয়নের কবিখালি গ্রামের মোহাসিন, আবু বক্কর ও কাথুলি গ্রামের হায়াত আলীসহ চুয়াডাঙ্গা ফার্মপাড়ার সামসুলকে মদ্যপ অবস্থায় আটক করে। পরে চার মাতালের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থাসহ দু’মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে মামলা দিয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা হেফাজতে সোপর্দ করা হয়।
পুলিশ সুত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল রাত সাড়ে ৮টার পর ডিবি পুলিশের এসআই জগদীশ চন্দ্র বসু সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে চুয়াডাঙ্গা বড় মসজিদপাড়ায় অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানকালে বড় মসজিদপাড়ার মৃত মওলা বক্সের ছেলে ওসমান গনি ওরফে রনিকে (৩৩) ও একই এলাকার মৃত আজিজুল হকের ছেলে সুজনকে (২৭) আটক করে। ওসমান গনি ওরফে রনির বসতবাড়ি থেকে এদেরকে আটক করা হয়। এসময় তাদের শরীর তল্লাশি করে ১০ এ্যাম্পুল প্যাথেডিন উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় আটককৃত আসামীর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে মামলাসহ চুয়াডাঙ্গা সদর থানা হেফাজতে সোপর্দ করা হয়।
অপরদিকে সদর ফাঁড়ির এসআই ওহিদুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে গতকাল রাত ৯টার সময় চুয়াডাঙ্গা রেল স্টেশনের পাশে পুরাতন স্টেডিয়াম এলাকা থেকে মদ্যপ অবস্থায় চার মাতালকে আটক করেছে। আটককৃতরা হলো- মোমিনপুর ইউনিয়নের কবিখালি গ্রামের মোশারফ আলীর ছেলে মোহাসিন (৩৫), একই এলাকার মৃত রিয়াজ শেখের ছেলে আবু বক্কর ছিদ্দিক (৪২), কাথুলি গ্রামের গোলাম রসুল এর ছেলে হায়াত আলী (৪৬) ও চুয়াডাঙ্গা ফার্ম পাড়ার মৃত আনছার আলীর ছেলে সামসুল (৪৫)। আটককৃত চার মাতালকে চুয়াডঙ্গা সদর থানা হেফাজতে রাখা হয়। এদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানায় থানা পুলিশ।