পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা না থাকায় জীবননগরের কালা গ্রামে জনদুর্ভোগ

63

জীবননগর অফিস:
জীবননগর উপজেলার মনোহরপুর ইউনিয়নের কালা গ্রামের দক্ষিণপাড়ায় কালভার্ট থাকলেও পানি নিস্কাশনের ব্যবস্থা না থাকায় জনদুর্ভোগ চরমে পৌঁেছছে। সামান্য বৃষ্টি হলেই কালা গ্রামের প্রায় ৩০টি পরিবার পানি বন্দী হয়ে পড়ে। অথচ পানি নিস্কাশনের একটি কালভার্ট নির্মাণ করা হলেও তা দিয়ে পানি বের হবার ব্যবস্থা নেই। এদিকে, কালা গ্রামের সাধারণ মানুষ এই দুর্ভোগ থেকে মুক্তি পেতে জীবননগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। ভুক্তোভোগী সামসুল আলম, মাবুদ, সিরাজুল ইসলামসহ গ্রামের একাধিক ব্যক্তি জানান, এই গ্রামের পানি নিস্কাশনের জন্য সরকারিভাবে কালভার্ট নির্মাণ করায় আমরা অনেক খুশি। কিন্তু যেখানে কালভার্ট স্থাপন করা হয়েছে তার সামনে একটি পুকুর থাকায় কালভার্টের উপরের অংশ মাটি দিয়ে উচু করে দেওয়া হয়েছে। যার ফলে পানি যেতে না পারায় গ্রামের মধ্যে পানি জমে রয়েছে। পানির মধ্য দিয়ে চলাচল করতে চরম সমস্যার মধ্যে পড়তে হচ্ছে আমাদের।
এ বিষয়ে মনোহরপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৫নং ওর্য়াড মেম্বার ইদবারী বলেন, কালা গ্রামের দক্ষিণপাড়ায় বেশ কিছু পরিবার পানিবন্ধী অবস্থায় রয়েছে এটা আমি জানি। পানি নিষ্কাশনের জন্য গ্রামে একটি কালভার্ট নির্মাণ করা হয়েছে। কিন্তু ওই পাড়ার কয়েক জন্য ব্যক্তি তাদের নিজেদের স্বার্থের জন্য কালভার্টের মুখে মাটি দিয়ে উচু করে রাখায় পানি বের হতে না পারায় এ সমস্যা হচ্ছে। আমি বিষয়টি চেয়ারম্যান মহোদয়কে জানাব।
জীবননগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এসএম মুনিম লিংকন বলেন, কালা গ্রামে কয়েকটি পরিবার পানিবন্ধী অবস্থায় আছে এমন একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। এ বিষয়ে সরেজমিনে পরিদর্শন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমি মনোহরপুর ইউপি চেয়ারম্যানকে বলেছি।