নারীকে চড়-থাপ্পর, পিতা-পুত্রকে কুপিয়ে জখম!

30

নিজস্ব প্রতিবেদক:
দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গায় এক নারীকে চড় থাপ্পর মারার প্রতিবাদে পিতা-পুত্রকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষ। জখম দুজনকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁদের অবস্থা শঙ্কামুক্ত বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। গতকাল শনিবার সন্ধ্যার দিকে কার্পাসডাঙ্গা গ্রামের কলোনি পাড়ায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। আহত ব্যক্তিরা হলেন কার্পাসডাঙ্গা গ্রামের কলোনি পাড়ার আব্দুল খালেক (৫০) ও তাঁর পুত্র আব্দুল মুত্তালেব (২৭)।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, আব্দুল মুত্তালেব চুলের ব্যবসা করেন। গতকাল তাঁর বাসা থেকে কিছু চুল হারিয়ে গেলে প্রতিবেশী বাবুলের স্ত্রী জনি খাতুনকে সন্দেহ করেন তিনি। পরে এ নিয়ে তাঁদের দুজনের মধ্যে শুরু হয় বাগবিত-া। একপর্যায়ে আব্দুল মুত্তালেব উত্তেজিত হয়ে জনি খাতুনকে চড় থাপ্পর মারেন। এতে জনি খাতুন অজ্ঞান হয়ে যান। এ ঘটনা শোনার পর জনি খাতুনের স্বামী বাবুল ও তাঁর সহযোগী মিরাজকে নিয়ে আব্দুল মুত্তালেবের ওপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে তাঁকে কুপিয়ে জখম করেন। এ সময় আব্দুল মুত্তালেবের পিতা ঠেকাতে গেলে তাঁকেও কুপিয়ে জখম করেন তাঁরা। পরে স্থানীয় লোকজন তাঁদের দুজনকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। সদর হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক বলেন, তাঁদের দুজনের অবস্থা শঙ্কামুক্ত। প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ভর্তি রাখা হয়েছে।
এ বিষয়ে দামুড়হুদা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকুমার বিশ্বাস বলেন, এ বিষয়ে এখনো কিছু শুনিনি বা কেউ কোনো অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান এ কর্মকর্তা।