নতুন সড়ক পরিবহন আইনটি একটি জনবান্ধব আইন

17
?

চুয়াডাঙ্গায় নতুন সড়ক আইন বিষয়ে সচেতনতামূলক সভায় ডিসি নজরুল ইসলাম
নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসন ও বিআরটিএ চুয়াডাঙ্গার আয়োজনে সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ বিষয়ে অবহিতকরণ ও সচেতনতামূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে তিনটায় চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বরের ডিসি সাহিত্য মঞ্চে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মনিরা পারভীনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বলেন, ‘সড়ক আমাদের সবার, সড়কের নিরাপত্তার দায়িত্বও আমাদের ওপর। সরকার-প্রণীত নতুন সড়ক পরিবহন আইনটি একটি জনবান্ধব আইন। নিরাপদ সড়ক আমাদের সবার প্রাণের দাবি। রাস্তা-ঘাট উন্নত হয়েছে, আমাদেরও পরিবর্তন দরকার। যাত্রা শেষে আমাদের নিরাপদে বাড়ি ফেরার নিশ্চয়তা করতে হবে। সে লক্ষ্যেই বর্তমান সরকার নতুন সড়ক পরিবহন আইন-১৮ কার্যকর ও বাস্তবায়নের জন্য কাজ করে যাচ্ছে।’ এ সময় তিনি আরও বলেন, জনগণ যাতে দ্রুত লাইসেন্স পাই, সে বিষয়ে কাজ করা হবে। প্রয়োজন হলে মাসে দুই থেকে তিন দিন বোর্ড বসবে। বিআরটিএ-তে কোনো কাজ যত দ্রুত সম্ভব সম্পন্ন করা হবে। মানুষ সেবা পাবে সহজে। এ সময় তিনি সবাইকে সড়ক পরিবহন আইন মেনে চলার আহ্বান জানান।
সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. কলিমুল্লাহ, চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. কামরুজ্জামান, চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবির সহকারী পরিচালক ইমরান আলী, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুল হাসান, সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর এস এম ই¯্রাফিল, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান, সিভিল সার্জনের প্রতিনিধি ডা. আওলিয়ার রহমান, চুয়াডাঙ্গা আদর্শ সরকারি মহিলা কলেজের উপাধ্যক্ষ রেজাউল করিম ও বিআরটিএ চুয়াডাঙ্গার সহকারী পরিচালক আতিয়ার রহমান।
সভায় আরও বক্তব্য দেন জেলা বাস-মিনিবাস মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক এ নাসির জোয়ার্দ্দার, জেলা বাস-ট্রাক সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি এম জেনারেল ইসলাম, চুয়াডাঙ্গা আন্তজেলা ট্রাক, ট্যাঙ্কলরী ও ক্যাভার্ডভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সহসভাপতি মামুন আর রশিদ ও প্রথম আলোর চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রতিনিধি শাহ্ আলম সনি। সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এ কে এম মাঈনুদ্দিন মুক্তা, জেলা বাস-মিনিবাস মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক সালাউদ্দীন। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন জেলা কালেক্টরেটের সহকারী নাজির হামিদুল ইসলাম।