দেশে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস পালন

45
????????????????????????????????????

বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভার মধ্যে দিয়ে চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুর, ঝিনাইদহসহ সারা

সমীকরণ প্রতিবেদন:
চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুর, ঝিনাইদহসহ সারা দেশে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল সোমবার র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ ছাড়াও সমাজে বিশেষ অবদান রাখায় ‘জয়িতা অন্বেষণে বাংলাদেশ’ শীর্ষক কার্যক্রমের আওতায় জয়িতাদের সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে।
চুয়াডাঙ্গা:
চুয়াডাঙ্গায় নানা আয়োজনে নারী জাগরণের অগ্রদূত মহিয়সী নারী বেগম রোকেয়া দিবস পালন করা হয়েছে। এদিন আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ পালন উপলক্ষে মানববন্ধন করেন নারীরা। এরপর জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে আলোচনা সভা ও জয়িতা সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। চুয়াডাঙ্গা জেলা মহিলাবিষয়ক অধিদপ্তর ও জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় জেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা আব্দুল আওয়ালের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার। বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. কলিমুল্লাহ, পৌর মেয়র ওবায়দুর রহমান চৌধুরী জিপু, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ ইয়াহ্ ইয়া খান ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মনিরা পারভীন। অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য দেন জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নিখিল রঞ্জন চক্রবর্তী, জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান নাবিলা রুকছানা ছন্দা, জেলা পরিষদের সদস্য নুরুন্নাহার কাকলী, সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সাহাজাদী আলম মিলি প্রমুখ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বলেন, নারী শিক্ষার ক্ষেত্রে বেগম রোকেয়া ছিলেন নারী জাগরণের অগ্রদূত। নারী শিক্ষার জন্য বেগম রোকেয়া তাঁর জীবদ্দশায় আন্দোলন সংগ্রাম করে গেছেন। নারীদের ঘরের বন্দী জীবনদশা থেকে মুক্তির চেষ্টা ও নারীর অধিকার আদায়ে বেগম রোকেয়া স্মরণীয় হয়ে আছেন। আলোচনা সভা শেষে জেলা পর্যায়ে ৫ জন ও উপজেলা পর্যায়ে ৫ জন মোট ১০ জন নারীকে সমাজ জীবনে বিশেষ অবদান রাখার স্বীকৃতিস্বরুপ জয়িতা সম্মাননা পুরস্কার প্রদান করা হয়। সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন নারী সংগঠক নুঝাত পারভীন।
আলমডাঙ্গা:
আলমডাঙ্গা উপজেলা প্রশাসন ও মহিলাবিষয়ক অধিদপ্তরের উদ্যোগে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ ও বেগম রোকেয়া দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল সোমবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলা পরিষদের চত্বর থেকে একটি র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়। পরে উপজেলা পরিষদের হলরুমে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. লিটন আলীর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসেন। সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. সালমুন আহম্মেদ ডন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজী মারজাহান নিতু ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা শামসুজ্জোহা। কলেজিয়েট স্কুলের উপাধ্যক্ষ শামিম রেজার উপস্থাপনায় সভায় স্বাগত বক্তব্য দেন উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা মাকসুরা জান্নাত। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিআরডিবি কর্মকর্তা সায়লা সারমিন, আইসিটি কর্মকর্তা ¯িœদ্ধা দাস, ফাতেমা আক্তার, ছালমা খাতুন প্রমুখ। আলোচনা সভা শেষে উপজেলার পাঁচ জয়িতাকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। সংবর্ধনাপ্রাপ্তরা হলেন জেহালা ইউনিয়নের রোয়াকুলি গ্রামের ছাহেরা খাতুন, আলমডাঙ্গা পুরাতন বাজারের অর্পণা রানী সাহা, ডাউকি ইউনিয়নের বক্সিপুর গ্রামের শ্রীমতি রিতা রানী দত্ত, হাটবোয়ালিয়া গ্রামের ছালমা খাতুন খাতুন ও কালিদাসপুর গ্রামের রেহানা খাতুন।
দামুড়হুদা:
দামুড়হুদায় বেগম রোকেয়া দিবস পালন উপলক্ষে মানববন্ধন ও জয়িতাদের সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। গতকাল সোমবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলা পরিষদ চত্বরে মানববন্ধন শেষে নির্বাচিত চারজন জয়িতাকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। দামুড়হুদা উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় ও উপজেলা মহিলাবিষয়ক কার্যালয়ের বাস্তবায়নে নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম মুনিম লিংকনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলী মুনসুর বাবু। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল আলম ঝণ্টু, ভাইস চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাহিদা খাতুন ও দামুড়হুদা মডেল থানার পরিদর্শক (ওসি) সুকুমার বিশ্বাস। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু হেনা মোহাম্মদ জামাল শুভো, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আশরাফ আলী, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও দর্শনা সকরারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ আব্দুল গফুর, জুড়ানপুর ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন, কার্পাসডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান ভুট্টু, নতিপোতা ইউপি চেয়ারম্যান আজিজুল হক আজিজ, দামুড়হুদা সদর ইউপি চেয়ারম্যান শরিফুল আলম মিল্টন, কুড়–লগাছি ইউপি চেয়ারম্যান শাহ্ এনামুল করিম ইনু, নাটুদাহ ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফি, দামুড়হুদা প্রেসক্লাবের সভাপতি এম নুরুন্নবী প্রমুখ। এ বছর সফল জননী জয়িতা নির্বাচিত হয়েছেন মিনা রানী সাহা, শিক্ষা ও চাকরির ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জনকারী জয়িতা নির্বাচিত হয়েছে নুরজাহান খাতুন, অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী জয়িতা নির্বাচিত হয়েছেন মালেকা খাতুন ও সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রেখে জয়িতা নির্বাচিত নাজমা পারভিন। নির্বাচিত জয়িতাদের সম্মাননা স্মারক তুলে দেন অতিথিরা। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা হোসনে জাহান।
জীবননগর:
‘নারী-পুরুষ সমতা, রুখতে পারে সহিংসতা’ প্রতিপাদ্যে জীবননগরে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে জীবননগর উপজেলা মহিলাবিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে গতকাল সোমবার সকাল ১০টায় উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে একটি র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে একই স্থানে এসে শেষ হয়। পরে উপজেলা পরিষদের হলরুমে এক আলোচনা সভা ও জয়িতাদের সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা সেলিম রেজার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জীবননগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জীবননগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েসা সুলতানা লাকী, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা দ্বীনেশ চন্দ্র পাল, বীর মুক্তিযোদ্ধা সাইদুর রহমান ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শারমিন আক্তার। আলোচনা সভা শেষে পাঁচ জয়িতা ঝরনা খাতুন, পলি খাতুন, রওশোনা বেগম এবং সাহমিদা খানকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন জীবননগর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এম আর বাবু।
মেহেরপুর:
মেহেরপুরে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস উপলক্ষে বর্ণাঢ্য র‌্যালি, সংবর্ধনা এবং আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে জেলা প্রশাসন ও জেলা মহিলাবিষয়ক অধিদপ্তরে আয়োজনে এবং জেলা জাতীয় মহিলা সংস্থার সহযোগিতায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বর থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়। জেলা প্রশাসক আতাউল গনির নেতৃত্বে র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা শিল্পকলা একাডেমির সামনে গিয়ে শেষ হয়। র‌্যালি শেষে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত জয়িতাদের সংবর্ধনা ও আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা মহিলাবিষয়ক অধিদপ্তরের উপপরিচালক এস এম শফিউল আযম। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক আতাউল গনি। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম রসুল, সিভিল সার্জন ডা. শামীম আরা নাজনীন, জেলা জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান শামীম আরা হিরা, জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক খান, সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন ও কবি নজরুল শিক্ষা মঞ্জিলের প্রধান শিক্ষক সানজিদা ইসলাম। মীর দানিয়েল হোসেন ও সুবর্ণা মাহজাবীনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন জয়িতা এলিজাবেদ খান, যমুনা খাতুন প্রমুখ।
আলোচনা সভা শেষে মেহেরপুর জেলাপর্যায়ে পাঁচজন এবং সদর উপজেলাপর্যায়ে পাঁচজন জয়িতাকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী সদর উপজেলার যাদবপুর গ্রামের মমতাজ খাতুন, শিক্ষা ও চাকরি ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জনকারী গাংনীর পূর্ব মালশাদহের আশরাফুন্নেসা, সফল জননী গাংনী কাজিপুর গ্রামের পারভিন আক্তার, নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যমে জীবন শুরু করা রেহেনা খাতুন এবং সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখায় মুজিবনগরের ভবেরপাড়া এলিজাবেদ খানকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। একই সঙ্গে উপজেলা পর্যায়ে মমতাজ খাতুন, নাজমুন্নেসা, আনোয়ারা খাতুন, রেহেনা খাতুন এবং নুরুন্নাহারকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।
গাংনী:
বেগম রোকেয়া দিবস ও আর্ন্তজাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ দিবস উপলক্ষে মেহেরপুরের গাংনীতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার সকালে মেহেরপুর-কুষ্টিয়া সড়কে এ মানববন্ধন শেষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সম্মেলনকক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান এম এ খালেক। গাংনী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. ইয়ানুর রহমানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা নাসিমা খাতুন, গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তদন্ত সাজেদুল ইসলাম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফারহানা ইয়াসমিন, জেলা আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক সম্পাদিকা নুরজাহান বেগম, আওয়ামী লীগের নেতা মনিরুজামান আতুসহ বিভিন্ন অফিসের কর্মকর্তারা। এ সময় জয়িতাদের সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।
মুজিবনগর:
মুজিবনগরে মানববন্ধন, র‌্যালি ও আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস পালিত হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় ও বেলা ১১টার দিকে উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা মহিলাবিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে পৃথকভাবে দিবসটি পালিত হয়। আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ দিবস পালন উপলক্ষে উপজেলা পরিষদের গেটের সামনে এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। পরে বেগম রোকেয়া দিবস পালন উপলক্ষে উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে একটি র‌্যালি বের হয়। উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জিয়াউদ্দীন বিশ্বাসের নেতৃত্বে র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) এম এম আরাফাত হোসেন, মুজিবনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল হাশেম, ভাইস চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম মোল্লা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফরোজা খাতুন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আনিসুজ্জামান খান, সমাজসেবা কর্মকর্তা আব্দুর রব, তথ্যসেবা কর্মকর্তা তানিয়া খন্দকার, মুজিবনগর প্রেসক্লাবের সভাপতি ওমর ফারুক প্রিন্সসহ উপজেলার সব দপ্তরের কর্মকর্তারা অংশ নেন। র‌্যালি শেষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) এম এম আরাফাত হোসেনের সভাপতিত্বে উপজেলা পরিষদের মিলনয়াতনে বেগম রোকেয়া দিবসের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় বেগম রোকেয়া দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে স্বাগত বক্তব্য দেন উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা তাজুল ইসলাম।
ঝিনাইদহ:
‘নারী পুরুষ সমতা, রুখতে পারে সহিংসতা’ এ স্লোগানে ঝিনাইদহে বেগম রোকেয়া দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে জেলা মহিলাবিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে গতকাল সোমবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে এক আলোচনা সভা ও জয়িতাদের সম্মাননা প্রদান করা হয়। জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য খালেদা খানম। এ সময় বক্তব্য দেন জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সুশান্ত কুমার দেব, মহিলাবিষয়ক অধিদপ্তরের উপপরিচালক নিলুফার রহমান, অ্যাড. সালমা ইয়াসমিন ও প্রোগ্রাম অফিসার খোন্দকার শরীফা আক্তার।