দেশের সামগ্রিক উন্নয়নে নারীদের এগিয়ে আসতে হবে

26

চুয়াডাঙ্গায় মহিলা সমিতির মধ্যে চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক
বিশেষ প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গার ৪ উপজেলার ৪৫টি স্বেচ্ছাসেবী মহিলা সমিতির মধ্যে বাংলাদেশ মহিলা কল্যাণ পরিষদের ৮ লাখ ৭০ হাজার টাকা অনুদান বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল সোমবার বিকেলে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থেকে অনুদানের এসব চেক বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার। এ সময় তিনি বলেন, ‘নারীর মূল্যায়ন পরিবার হতেই শুরু করতে হবে। গৃহকর্মে নারীর যে অবদান, তার অর্থমূল্য দেশের মোট জিডিপির ৪০ শতাংশের বেশি। গৃহকর্মের বাইরে দেশের সামগ্রিক উন্নয়নের বহুবিধ কাজে এগিয়ে আসা নারীর সংখ্যা অনেক কম। প্রাপ্য-উৎসাহ ও সঠিক পৃষ্ঠপোষকতা পেলে নারীরা সমাজ ও দেশের কল্যাণে আরও সাহসী পদক্ষেপ নিয়ে এগিয়ে আসবে।’
প্রাপ্ত অনুদানের অর্থের সঠিক ও কার্যকর ব্যবহারের আহ্বান জানিয়ে জেলা প্রশাসক বলেন, ‘নারী জনগোষ্ঠীর টেকসই উন্নয়নে সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ে ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টার গুরুত্ব অনেক বেশি। আপনারা চাইলে পরিবার থেকে অপরাধপ্রবণতা রোধে কাজ করতে পারেন। নিজের সন্তানকে সুশিক্ষা দেওয়ার মাধ্যমে সমাজ থেকে মাদক, বাল্যবিবাহ বন্ধ করতে আপনাদের সবাইকে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে হবে।’
চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে জেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা আব্দুল আওয়ালের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ ইয়াহ্ ইয়া খান ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল বাশার। এ সময় বিভিন্ন সমিতির সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকরা উপস্থিত ছিলেন।
মহিলাবিষয়ক অধিদপ্তরের বাংলাদেশ মহিলা কল্যাণ পরিষদ হতে ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে সাধারণ অনুদান হিসেবে চুয়াডাঙ্গা জেলা মহিলাবিষয়ক কার্যালয়ের আওতাধীন ৪ উপজেলার ৪৫টি স্বেচ্ছাসেবী মহিলা সমিতিকে ৩ ক্যাটাগরিতে মোট ৮ লাখ ৭০ হাজার টাকা অনুদান দেওয়া হয়।