দীর্ঘ কয়েক বছর পর পুনঃসংস্করণ করা হচ্ছে ‘আন্ডার পাস’ সড়ক

279

চুয়াডাঙ্গা রেলগেটে যানজট নিরসনে জেলা প্রশাসক ও পৌর মেয়রের প্রশংসনীয় উদ্যোগ দীর্ঘ কয়েক বছর পর পুনঃসংস্করণ করা হচ্ছে ‘আন্ডার পাস’ সড়ক
DC News XX মোটরসাইকেল, বাইসাইকেল, ইজিবাইক, রিক্স কি বা প্রাইভেট কার নিয়ে জরুরী কাজে যাচ্ছেন। কিন্তু রেলগেটে এসে থমকে দাড়িয়ে যানজটে পড়ে থাকতে হয় ঘন্টার পর ঘন্টা। কখনও বা ফায়ারসার্ভিস-এ্যাম্বুলেন্সও যানজটে পড়ে হারায় মূল্যবান সময়। এসব ভোগান্তি নিরসনে কার্যকরী ব্যবস্থা নিয়েছে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসন ও পৌর পরিষদ। গতকাল রবিবার জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভা শেষে বিকাল ৪টার দিকে জেলা প্রশাসক জিয়াউদ্দীন আহমেদ উপস্থিত হয়ে ব্যস্ততম এ সড়কের পাশ কাটিয়ে জরুরী যাতায়াতের জন্য ‘আন্ডার পাস’ সড়ক পুনঃসংস্করণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। এ সময় তিনি নিজে শাবল হাতে সড়কের আশপাশে থাকা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ও পুনঃসংস্করণ কাজে শ্রমিকদের সহায়তা করেন। এ ছাড়াও শহরের মধ্যে যানজট কমাতে কয়েকটি বাইপাস রাস্তা নির্মাণের জন্য রেলপাড়া এলাকা পরিদর্শন করেন। জেলা প্রশাসকের দাবি- প্রকল্পগুলো বাস্তবায়ন করা গেলে শিঘ্রই শহরের যানজট নিয়ন্ত্রণে আসবে। সাথে সাথে রেলগেটে ভোগান্তি কমবে।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন পৌর মেয়র ওবাইদুর রহমান চৌধুরী জিপু, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আব্দুর রাজ্জাক, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মৃণাল কান্তি দে, সহকারী কমিশনার (ভূমি) পূলক কুমার মন্ডলসহ পৌর কাউন্সিলর, প্রকৌশলী ও স্থানীয় ব্যক্তিবর্গ।
প্রসঙ্গত, বহুদিন থেকে ‘আন্ডার পাস’টি চালু থাকলেও বিগত বেশ ক’বছর ধরে এটি অজ্ঞাত কারণে চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। ফলে ট্রেন যাওয়া-আসা ও ক্রসিংয়ের সময় রেলগেটটিতে ব্যপক হারে যানজট বেড়ে যায়। কোন কোন সময় রেল কতৃপক্ষ কি বা পথচারীদের অসতর্কতায় ছোট খাট দূর্ঘটনাও ঘটে এখানে। বিষয়টি জানার পর চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক জিয়াউদ্দীন আহমেদ পৌর মেয়র ও সড়ক বিভাগের কর্মকর্তাদের সাথে নিয়ে নিজেই আন্ডার পাস পুনঃসংস্করণ কাজে অংশ নেন। দু’একদিনের মধ্যেই এটি চলাচলের উপযোগী হয়ে পড়বে। যানজট নিরসনে জেলা প্রশাসক ও পৌর মেয়রের এহেন ব্যতীক্রম উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন পথচারীসহ বিভিন্ন মহল।