দামুড়হুদায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে তিনজনের জরিমানা

142

প্রতিবেদক, দামুড়হুদা:
সরকারি আদেশ অমান্য করার অপরাধে দামুড়হুদায় তিনজনকে ৯ শ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালতে। ভৈরভ নদীতে বাঁধ দিয়ে মাছ ধরাই জেলেদের প্রথমবার সর্তক করেন এবং যাদের মাস্ক কেনার সামর্থ্য নেই, তাঁদের মধ্যে মাস্ক বিতরণ করেন দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দিলারা রহমান। গতকাল বুধবার বেলা ১টা থেকে ৪টা পর্যন্ত এই অভিযান চালানো হয়।
জানা যায়, সরকারি আদেশ অমান্য করে মাস্ক ব্যবহার না করে রাস্তায় চলাফেরা করার অপরাধে ১৮৬০ সালের ১৮৮ ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে দামুড়হুদা উপজেলা লোকনাথপুর গ্রামের আব্দুর রহিমকে ১ শ টাকা, বড় দুধপাতিলার মাসুমকে ২ শ টাকা ও আলমডাঙ্গার হাজি মুকুল মল্লিককে ৫ শ টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দিলারা রহমান। ভ্রাম্যমাণ আদালতে সহযোগিতা করেন উপজেলা সার্টিফিকেট সহকারী জিহন আলী।
একই দিনে দামুড়হুদা উপজেলার রঘুনাথপুর ও সুবুরপুর মাথাভাঙ্গা নদী ও ভৈরব নদীতে বাঁধ মাছ ধরছে এক দল জেলেরা, এমন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযানে আসেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দিলারা রহমান। বৃষ্টির মধ্যে সবাইকে না পেলেও কয়েকজনের সঙ্গে দেখা হলে প্রথমবারের মতো সর্তক করে বলেন বাঁধ তুলে নেওয়ার জন্য। এরপরও যদি বাঁধ দেওয়া থাকে, তাহলে তাঁদের বিরুদ্ধে আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মৎস্য অফিসার সেলিম রেজা। একই দিনে দামুড়হুদা সদরে ও দর্শনা এলাকায় যারা মাস্ক কিনে ব্যবহার করতে পারছেন না, তাদের মধ্যে মাস্ক বিতরণ করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দিলারা রহমান।