দর্শনার সংগঠনটি প্রত্যাহার করা না হলে লাগাতার ধর্মঘট

117

চুয়াডাঙ্গা জেলা বাস-ট্রাক সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সংবাদ সম্মেলন
নিজস্ব প্রতিবেদক:
দুই দফা দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে চুয়াডাঙ্গা জেলা বাস-ট্রাক সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন। দাবি বাস্তবায়ন না হলে ২৫ জুলাই থেকে লাগাতার ধর্মঘটের হুঁশিয়ারি দিয়েছে সংগঠনটি। গতকাল বুধবার সকাল ১০টায় টাউন ফুটবল মাঠের সামনে সংগঠনের কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
চুয়াডাঙ্গা জেলা বাস-ট্রাক সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি এম জেনারেল ইসলাম লিখিত বক্তব্যে জানান, বাংলাদেশ আন্তজেলা ট্রাক চালক ইউনিয়ন দর্শনাতে অবৈধভাবে স্থাপন হলে দুটি সংগঠনের ট্রাকের শ্রমিকদের মধ্যে একটি বিরোধের সৃষ্টি হয়। স্থানীয় দুটি সংগঠনের শ্রমিকদের মধ্যে বিরোধের বিষয়টি বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনকে অবগত করা হলে গত ২৬ জুন এক পত্রের মাধ্যমে শাখাটি প্রত্যাহার করার নির্দেশ দেওয়া হয়। তারপরও শাখাটি প্রত্যাহার না হলে ২৯ জুন চুয়াডাঙ্গার স্থানীয় রেজিস্টার্ডপ্রাপ্ত দুটি শ্রমিক সংগঠনের আহ্বানে ৯টি শ্রমিক সংগঠনের সমন্বয়ে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় দর্শনার অবৈধ সংগঠনটি প্রত্যাহারে দুই দফা দাবি প্রশাসনের নিকট জানানো হয়। পরে পুলিশ প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আগামী বৈঠক না হওয়া পর্যন্ত কোনো প্রকার চাঁদাবাজি হবে না বলে জানান। কিন্তু দুঃখের বিষয়, বৈঠকের প্রতিশ্রুতি মোতাবেক জেলা পুলিশ প্রশাসন দর্শনাতে অবৈধভাবে চাঁদাবাজি বন্ধ করতে ব্যর্থ হয় এবং পরে একাধিকবার পুলিশ প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও পরবর্তী বৈঠকের কোনো দিন বা সময় তার নির্ধারণ করেনি।
এ কারণে জানানো যাচ্ছে যে, ৭ জুলাইয়ের দুই দফা দাবি আদায়ের স্থগিত হওয়া শ্রমিকদের লাগাতার কর্মবিরতি ২৩ জুলাইয়ের মধ্যে নিষ্পত্তি করা না হলে ২৪ জুলাই বুধবার ভোর পাঁচটা হতে চুয়াডাঙ্গা জেলার বাস, মিনিবাস, ট্রাক, ঢাকাগামী কোচ ও মাইক্রোবাসসহ সব প্রকার পরিবহনের শ্রমিকেরা লাগাতার কর্মবিরতি পালন করবেন এবং ২৫ জুলাই বৃহস্পতিবার বেলা তিনটায় শহীদ হাসান চত্বরে এক শ্রমিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। সমাবেশে কেন্দ্রীয় ও আঞ্চলিক নেতারা উপস্থিত থাকবেন।
সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি হাবিবুর রহমান লাভলু মিয়া, জেলা বাস-ট্রাক-লরী-ক্যাভার্ড ভান (দাহ্য পদার্থ বাদে) শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আরিফ শেখসহ নেতারা।