ডাক্তারের পর বেশি ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছে পুলিশ

167

চুয়াডাঙ্গায় পুলিশ সদস্যদের মধ্যে ঈদ উপহার বিতরণকালে এসপি জাহিদ
নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গা পুলিশে কর্মরত সদস্যদের মধ্যে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে উপহার-সামগ্রী বিতরণ করেছেন পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম। গতকাল মঙ্গলবার পুলিশ সুপারের কার্যালয় চত্বরে আনুষ্ঠানিকভাবে এসব উপহার-সামগ্রী তুলে দেন তিনি।
জানা যায়, ঈদের খুশি ভাগাভাগি করে নিতে পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম পুলিশ, নন পুলিশ (সিভিল স্টাফ), আনসার ও আউটসোর্সিং স্টাফদের মধ্যে শুভেচ্ছা-সামগ্রী বিতরণ করেন। এর মধ্যে জেলা পুলিশের ১ হাজার ১০৮ জন, আরআরএফ পুলিশ ১২৭ জন, আনসার-১২৫ জন, নন পুলিশ (সিভিল স্টাফ) ১৯ জন ও আউটসোর্সিং স্টাফ ২১ জনকে উপহার দেওয়া হয়।
এ সময় জেলা পুলিশ চুয়াডাঙ্গায় কর্মরত ক্ষেত্রমতে পদ ও পদমর্যাদা অনুযায়ী ঈদ উপহার-সামগ্রী হিসেবে পাঞ্জাবী ১৬০টি, থ্রি-পিস ১৩টি, শাড়ি ৬টি ও মগ ১ হাজার ৫ শ পিস বিতরণ করেন পুলিশ সুপার।
এ সময় পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম জানান, ‘করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ডাক্তারের পর সবচেয়ে বেশি ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছেন পুলিশ সদস্যরা। সাধারণ লোকের ঘরে থাকা নিশ্চিত করতে সার্বক্ষণিক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি আমরা। তাই বাংলাদেশ পুলিশের এসব যোদ্ধাদের প্রতি সম্মানস্বরূপ ঈদ উপহার বিতরণ করা হয়েছে।’ তিনি আরও জানান, ‘করোনা দুর্যোগ মোকাবিলায় যেমন আমরা প্রস্তুত ছিলাম, তেমনি ঘূর্ণিঝড় আমফান মোকাবিলাও আমরা সফল হতে পারব।’ জরুরি মুহূর্তে সবাইকে সাবধানে থাকারও আহ্বান জানান তিনি।