ঝিনাইদহ মহেশপুর সীমান্তে বিএসএফ’র গুলিতে স্কুল ছাত্রসহ দুই বাংলাদেশী নিহত

133

555555

ঝিনাইদহ/মহেশপুর প্রতিনিধি: ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার খোসালপুর সীমান্তে বিএসএফ এর গুলিতে মঙ্গলবার সকালে সোহেল রানা (১৭) ও হরুন অর রশিদ (২০) নামে দুই বাংলাদেশী নিহত হয়েছে। মহেশপুরের বাকশপোতা স্কুলের নবম শ্রেনীর ছাত্র সোহেল রানা খোসালপুর গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে। অন্যদিকে নিহত হারুন অর রশিদ মহেশপুরের শ্যামকুড় গ্রামের মসজিদ পাড়ার কাউসার আলীর ছেলে।
বিজিবির খোসালপুর ক্যাম্প কমান্ডার আবু তাহের জানান, সিভিল সোর্স মারফত জানতে পেরেছি, মঙ্গলবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে বাংলাদেশের বিপরীতে ভারতের কুমারীপাড়া এলাকার কলা বাগানে দুই বাংলাদেশীকে বিএসএফ গুলি করে হত্যা করেছে। স্থানীয় গ্রামবাসিও জানাচ্ছে সোহেল ও হারুন নামে দুই ব্যক্তিকে খুজে পাওয়া যাচ্ছে না। তিনি জানান নিহতদের মধ্যে সোহেল স্কুলে পড়ে। সে বাকশপোতা হাইস্কুলের ছাত্র। তিনি সংবাদ মাধ্যমকে জানান, গরু পাচারকারীদের খপ্পরে পড়ে নিহত দুই কিশোর ভারতে অভ্যন্তরে ঢুকেছে। দুই কিশোরকে টাকার লোভ দেখিয়ে প্রলুদ্ধ করতে পারে বলে তার ধারণা। লাশ দুইটি একটি কলা বাগানের মধ্যে পড়ে আছে বলেও তিনি জানান। সর্বশেষ পরিস্তিতি নিয়ে খোসালপুর বিজিবি বিওপি ক্যাম্প কমান্ডার আবু তাহের জানান, বিকালে আমরা প্রতিবাদ পত্রসহ চিঠি দিতে গিয়েছি, কিন্তু বিএসএফ আমাদের চিঠি গ্রহন করছে না।
বিষয়টি নিয়ে ঝিনাইদহ খালিশপুর ৫৮ বিজিবির অধিনায়ক লে: কর্ণেল জিল্লুর রহমান বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে জানান, খবর পেয়ে আমি মহেশপুরের খোসালপুর সীমান্ত এলাকা পরিদর্শন করেছি। আমরা নিশ্চিত হয়েছি দুই বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। তবে তাদের নাম ঠিকানা নিশ্চিত হতে পারিনি। তিনি বলেন, আমরা লাশ ফেরৎ চেয়ে চিঠি দেবার প্রস্তুতি নিচ্ছি। মহেশপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশাফুর রহমান জানান, আমি ট্রেনিংয়ে বরিশাল আছি। তবে সাংবাদিকদের মাধ্যমে সীমান্তে দুই জন হত্যার খবর পেয়েছি।
মহেশপুর থানার ওসি আহম্মদ কবির জানান, ভারতে গরু আনতে গেলে বিএসএফ দুই বাংলাদেশীকে হত্যা করেছে বলে শুনেছি। তবে বিজিবির পক্ষ থেকে পুলিশকে এখনো কিছু জানানো হয়নি। এদিকে সীমান্তের খোসালপুর গ্রামের বাসিন্দা আনোয়ারুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার ভোরের দিকে ভারতের কুমারীপাড়া বিএসএফ ক্যাম্পের অধীনে এ ঘটনা গটে। মঙ্গলবার সকালেই আমরা লোকমুখে কানাঘুষা করতে দেখি।
মহেশপুরর শ্যামকুড় গ্রামের এনামুল হক জানান, হারুন আমার সাথে দেশি গরুর ব্যবসা করতো। গত দুই দিন তার সাথে আমার আর যোগাযোগ নেই। শুনছি সে ভারতে গরু আনতে গিয়ে মারা গেছে।
মহেশপুরের নেপা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শামছুল হক মৃধা জানান, খোসালপুর সীমান্তে দুই জন নিহত হয়েছে। তাদের লাশ আনার চেষ্টা চলছে।
এদিকে অভিযোগ পাওয়া গেছে মহেশপুর এলাকার চোরাকারবারী খোসালপুর গ্রামের জাহাঙ্গীরের প্ররোচনায় সোহেল রানা ও হারুন ভারতে যায় গরু আনতে।