জীবননগর সীমান্তে মাদকের ব্যবসা জমজমাট

245

নিজস্ব প্রতিবেদক: জীবননগর উপজেলার সীমান্ত ইউনিয়নের গয়েশপুর ও গোয়ালপাড়ায় প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে জমজমাট ভাবে মাদকের ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে কতিপয় মাদকব্যবসায়ীরা। জানা যায়, জীবননগর শহর থেকে মাত্র ৫কিলোমিটার দুরে অবস্থিত ভারতীয় সীমান্ত, এর পাশেই অবস্থিত সীমান্ত ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রাম। গত কয়েক মাসে বর্তমান সরকারের মাদক মুক্ত দেশ গড়ার অংশ হিসেবে চুয়াডাঙ্গা পুলিশ যে অবদান রেখে ছিলো তা চোখে পড়ার মত। পুলিশের দেওয়া পূনর্বাসন সুযোগে মাদক ব্যবসায়ীরা বেশ কয়েক দিন তাদের সমস্থ ব্যবসা বন্ধ করে দিয়ে ভালো হওয়ার জন্য শপথ গ্রহন করেন। কিন্তু সময় যেতে না যেতেই কতিপয় মাদকব্যবসায়ীরা আবার জমজমাট মাদকব্যবসা শুরু করছে বলে জানা গেছে। এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, যে সমস্থ মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশের হাতে মাদক ব্যবসা ছেড়ে ভালো হওয়ার জন্য শপথ গ্রহণ করে তারা বেশ কিছুদিন নিজেদের গুটিয়ে রেখে আবার এ পথে হাটছে। জানা গেছে, জীবননগর উপজেলার সীমান্ত ইউনিয়নের গোয়ালপাড়া গ্রামের গোপালের স্ত্রী মনু, গয়েশপুর গ্রামের জামায়াত আলীর ছেলে বাপ্পি ও গোয়ালপাড়া গ্রামের মহিদুলের ছেলে রাজু প্রকাশ্যে তাদের মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে বলেও বহুজনের অভিযোগ রয়েছে সাংবাদিকদের কাছে। গতকাল গতকাল শুক্রবার বিকাল ৪টায় বিজিবি সদস্যরা একটি বস্তা বোঝায় ফেন্সিডিল আটক করলে স্থানীয় অনেকে ধারনা করে এই সমস্ত ফেন্সিডিলের মালিক হয়তো মনু, বাপ্পি অথবা রাজু। এবিষয়ে মনু, বাপ্পি ও রাজুর বক্তব্য নেওয়ার চেষ্টা করা হলে তাদের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। এমনকি তাদের ব্যক্তিগত মোবাইল নাম্বারও কেউ দিতে পারেনি সাংবাদিকদের। তাই বিজিবি আটককৃত ফেন্ডিসিলের মালিক তারা কিনা সে বিষয়ে কোন নিশ্চিত তথ্য পাওয়া যায়নি। এলাকাবাসী মাদক নির্মূলে প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।